ছনি চৌধুরী,হবিগঞ্জ প্রতিনিধি ॥॥
নবীগঞ্জ পৌর এলাকার নোয়াপাড়া গ্রামের সিএনজি চালক বেলালকে ১৫ সনের এপ্রিল মাসে একদল সন্ত্রাসী শেরপুর রোডস্থ সোনারখনি মা হোটেলের সামনে প্রকাশ্য দিবালোকে খুন করে। বেলাল খুন হওয়ার দুইদিন অতিবাহিত হওয়ার পর বেলালের পিতা ফারুক মিয়া ৪ জনকে প্রধান আসামী করে নবীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। বেলাল হত্যা মামলার আসামীরা কেউ ছয় মাস, কেউ তিন মাস কারাভোগ করে জামিনে আসার পর নানান প্রলোভন দেখিয়ে মামলা আপোষ করার জন্য ১৪ লক্ষ টাকার বিনিময়ে পাষন্ড পিতার কাছ থেকে হত্যা মামলা কিনে নেন। এ নিয়ে সিএনজি চালক শ্রমিকদের মধ্যে চাপা ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে। সরেজমিনে তথ্য সংগ্রহকালে সিএনজি চালকদের সাথে আলাপ করে জানা যায়, নবীগঞ্জ-আইনগাঁও সড়কের সিএনজি স্ট্যান্ড দখল বেদখল কে কেন্দ্র করে একাদিকবার দু’পক্ষের লোকের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এরই জের ধরে একদল সন্ত্রাসী সিএনজি চালক বেলালকে খুন করে। বেলাল খুন হওয়ার এক সপ্তাহ আগে বিয়ে করে নববধূ ঘরে নিয়ে আসে। বিয়ের মেহেদী শুকানোর আগেই প্রকাশ্য দিবালোকে খুন হয় বেলাল। এসময় তার নববধূ ও গর্ভধারনী মায়ের আত্ম চিৎকার মা তার ছেলে হারানো বেদনা, নববধূ তার স্বামী হারা বুক পাটা কান্না শ্রমিকদের আহাজারি এলাকার বাতাস ভারি হয়ে যায় নিরব হয় চর্তুরদিক। বছরখানেক যেতে না যেতেই পরিস্থিতির শিকার হয়ে টাকার কাছে বিক্রি হয় বেলালের পিতা ফারুক। ছেলের খুনিদের কাছে বিক্রি করে দেয় হত্যা মামলা। শ্রমিকরা আরও জানান, টাকার কাছে হত্যা মামলা বিক্রি করায় আমরা বিচিলিত হই। এভাবে প্রকাশ্য দিবালোকে খুন করে পার হয়ে গেল খুনিরা। বেলালের পিতা একবার ও কি ভাবলেন না আমার ছেলে হত্যার বিচার হোক। ধিক্কার জানাই এমন পিতার যে নাকি ছেলের নির্মম হত্যার বিচারের জায়গায় মাত্র ১৪ লক্ষ টাকার কাছে মাতা নথ করে ছেলে হত্যার বিচার গলা টিপে হত্যা করল। বেলালের পিতা ফারুক মিয়ার এমন কর্মকান্ডে আমরা আজ হতাশ।

দিলিপ চৌহান, পত্নীতলা(নওগাঁ) প্রতিনিধিঃ পত্নীতলায় উপজেলার মাটিন্দর ইউনিয়ন পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষনা শেষে দোয়া ও ইফতার মাহফিল বৃহস্পতিবার ইউনিয়ন পরিষদ চত্ত্বরে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মাটিন্দর ইউপির চেয়ারম্যান জাহাঙ্গির আলম রুবেলের সভাপতিত্বে মাটিন্দর ইউপির সচিব এ.কে.এম মান্নান চলতি অর্থ-বছরের বাজেট পর্যালোচনা করেন এবং আগামি ২০১৭- ২০১৮ অর্থ-বছরের প্রস্তাবিত বাজেট উত্থাপন করেন। প্রস্তাবিত বাজেট অনুযায়ী আগামী অর্থ বছরের জন্য আয় ধরা হয়েছে ২ কোটি ৭৩ লক্ষ ৮১ হাজার ২০৫ টাকা এবং ব্যয় ধরা হয়েছে ২ কোটি ৭৩ লক্ষ ৬৮ হাজার ৮৭০ টাকা। উদ্বৃত্ত ধরা হয়েছে ১২ হাজার ৩৩৫ টাকা।এসময় বাজেট ঘোষনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাটিন্দর ইউপি আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মতিয়ার রহমান, উক্ত ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান রেজাউল করিম, ইউপি সদস্য আমিনুল রহমান, মিজানুর রহমান ছানা, মোজ্জাফর রহমান, ইজাবুল ইসলাম, ইউপি সংরক্ষিত মহিলা সদস্য তৌফিকা বানু, সেলিনা আক্তার, শাহানাজ বেগম, আব্দুল সাত্তার সহ অন্যান্য ইউপি সদস্য সুধীজন প্রমূখ।উন্মুক্ত বাজেট ঘোষনা শেষে সন্ধ্যায় দোয়া ও এক ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়।


আবু বক্কর সিদ্দিক, গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধিঃ
গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে প্রেম করে অবশেষে পালিয়ে বিয়ে করায় রিপন চন্দ্র দাশ (২২) নামে প্রেমিককে পরিকল্পিতভাবে হত্যার অভিযোগে প্রেমিকার স্বজনের বসতবাড়ি ও দোকানের ব্যাপক ভাংচুরসহ অগ্নিসংযোগ করেছে বিক্ষুদ্ধ জনতা। হত্যা মামলা না নেয়া পর্যন্ত লাশ গ্রহণ করছেন না নিহতের পরিবার।
বিভিন্ন সুত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে সুন্দরগঞ্জ ও বগুড়ার কাহালু থানা পুলিশের যৌথ কাহালু পৌরসভার কাইটপাড়াস্থ জনৈক গঙ্গা রাম দাশের বাড়ি থেকে প্রেমিক রিপনসহ প্রেমিকা (১৫ কে গ্রেপ্তার ও উদ্ধার করেন পুলিশ। এরপর বিকেল সাড়ে ৩ টার দিকে একটি মাইক্রোবাস যোগে কাহালু থেকে সুন্দরগঞ্জে আনার সময় গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ি উপজেলার গোপীনাথপুরের জুনদহবাজার নামক স্থানে ঢাকা-রংপুর মহা-সড়কে একটি ট্রাক চাপায় রিপন নিহত হয়ে পরে হাসপাতালে মারা গেছে বলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়। নিহত রিপন সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ধোপাডাঙ্গা ইউনিয়নের হাতিয়া গ্রামের জেলেপাড়াস্থ বাবলু চন্দ্র দাশের ছেলে। এ নিয়ে কথা হলে জনৈক রওশন আলমসহ স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন ধরে প্রতিবেশী সুরেশ চন্দ্র দাশের মেয়ে (১৫)’র সঙ্গে রিপনের প্রেম নিবেদন চলে আসছিল। টের পেয়ে মেয়েকে অন্যত্রে বিয়ে দেয়ার প্রস্তুতি নেয় সুরেশ চন্দ্র। তা বুঝতে পেয়ে গত ২৯ মে পরিবারের সবার অলক্ষ্যে প্রেমিকাসহ কাহালু পৌরশহরের কাইট পাড়াস্থ গঙ্গারাম দাশের বাড়িতে আশ্রয় নিয়ে এফিডেভিট মূলে বিয়ে তারা। এ নিয়ে সুরেশ চন্দ্র সুন্দরগঞ্জ থানায় একটি অপহরণ মামলা করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই রাজু মিয়া ব্যাপক তল্লাশী চালিয়ে কাহালু থানা পুলিশের সহায়তায় অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার পূর্বক অপহৃতাকে উদ্ধার করতে সক্ষম হন। এ ঘটনায় পর লাশের ময়না তদন্ত শেষে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তরের কথা থাকলেও সংশ্লিষ্ট থানায় হত্যা মামলা না নেয়া পর্যন্ত পরিবারবর্গ লাশ গ্রহণ করছেন না। রিপনকে বহণকারী মাইক্রোতে স্থানীয় এক ইউপি সদস্যসহ সুরেশ চন্দ্র তার স্বজনরা ওই মাইক্রোতে ছিলেন। রিপনের পরিবারের অভিযোগ মাইক্রোতেই তাকে হত্যা পর ঘটনা ভিন্ন খাতে প্রবাহের চেষ্টা চলছে। এদিকে, বিষয়টি নিয়ে বিক্ষুদ্ধ জনতা সুরেশ চন্দ্র ও তার স্বজনের বাড়ি ও দোকানের ব্যাপক ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। এব্যাপারে কাহালু থানা অফিসার ইনচার্জ-নূরে আলম সিদ্দিকী মুঠোফোণে বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুরে রিপনকে গ্রেপ্তার ও অপহৃতাকে উদ্ধার করা হয় গঙ্গারামের বাড়ি থেকে। গঙ্গারাম রিপন দাশের নিকটাত্মীয়। পলাশবাড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ নামাজে রয়েছেন জানিয়ে ডিউটি অফিসার- এএসআই রুবেল মিয়া বলেন, রিপন চন্দ্র দাশ নামে এক আসামী পালানোর চেষ্টাকালে ট্রাক চাপায় আহত হয়। তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে। লাশ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রয়েছে। তবে অপহরণ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা- এসআই রাজু মিয়াকে মোবাইল ফোণে পাওয়া যায়নি।
থানা অফিসার ইনচার্জ- মোহাম্মদ আতিয়ার রহমান বলেন, নবম শ্রেণীর ছাত্রীকে অপহরণের দায়ে রিপন চন্দ্র দাশের বিরুদ্ধে অপহৃতার বাবা সুরেশ চন্দ্র দাশ একটি মামলা করেন। এ মামলায় বৃহস্পতিবার দুপুরে কাহালু থেকে অপহৃতাকে উদ্ধারসহ অপহরণকারী রিপনকে গ্রেপ্তারের পর মাইক্রোবাসযোগে থানায় আনা হচ্ছিল। পলাশবাড়ির গোপীনাথপুর জুনদহবাজারে প্র¯্রাব করার কথা বলে রিপন চন্দ্র মাইক্রোবাস থেকে পালানোর চেষ্টা করে। এসময় একটি দ্রুত গামী ট্রাক তাকে চাপা দিলে সে গুরুতর আহত হয়। তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত ডাক্তার রিপনকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ব্যপারে পলাশবাড়ি থানায় একটি মামলা হয়েছে।
শুক্রবার উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান- আবু সোলায়মান সরকার, ধোপাডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট মোখলেছুর রহমান রাজু, থানা অফিসার ইনচার্জ- মুহাঃ আতিয়ার রহমান, পরিবারকে লাশ গ্রহণের জন্য বলেন। কিন্তু, পরিবার থেকে হত্যা মামলা না হওয়া পর্যন্ত লাশ গ্রহণ করছেন না বলে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সুত্রে জানা গেছে।


এন.আই.মিলন, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি– দিনাজপুরের বীরগঞ্জ ডিগ্রী কলেজের ৭ পরীক্ষার্থীকে বহনকারী পাগলুর সাথে ট্রলির সংঘর্ষে সড়ক দুর্ঘনায় গুরতর আহত হয়েছে।
খানসামা উপজেলার পাকেরহাট ডিগ্রী কলেজে বৃহস্পতিবার দুপুর ১ টায় পরীক্ষা দিয়ে বাড়ী ফেরার পথে বীরগঞ্জ ডিগ্রী কলেজের ৭ পরীক্ষার্থীকে বহনকারী পাগলুর সাথে ট্রলির সংঘর্ষে সড়ক দুর্ঘনায় আহত হয়েছে। এলাকাবাসী আহতদের দ্রুত পাকেরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে¬েক্স নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসার ব্যবস্থা করে। এদের মধ্যে ৪ পরীক্ষার্থী শংকর (২২), পারভীন (২০), কৈলাশ (২১), গায়ত্রী (২০) গুরতর আহত হয়।
পাকেরহাট স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সে হাসপাতালের আরএমও হারুন অর রশিদ জানায়, ৪ পরীক্ষার্থীর আঘাত বেশ গুরুতর তবে পারভীনের বাঁ পায়ের উরতে আর শংকরের ডান পায়ের উরতে রড ঢুকেছে। তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেলে প্রেরণ করা হয়েছে।
বীরগঞ্জ ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ খায়রুল ইসলাম চৌধূরী জানায়, আহত ৭ পরীক্ষার্থী পাকেরহাট ডিগ্রী কলেজ ভেনু থেকে পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফিরছিল।
প্রত্যক্ষদর্শী ভ্যান চালক আব্দুর রাজ্জাক জানায়, পরীক্ষা শেষে ৭ পরীক্ষার্থীকে বহনকারী পাগলু সহজপুর ছাপ্পার মোড়ে পৌচালে বিপরিদ দিকে থেকে আসা ভুট্টার গাছ বহনকারী একটি ট্রলির সাথে সংঘর্ষ হয়।
আহতরা বীরগঞ্জ উপজেলার সুজালপুর, বোয়ালমারী, দামাইক্ষেত্র ও কুমোরপুর গ্রামের বাসিন্দা এবং ডিগ্রী কলেজের ১ম বর্ষের পরীক্ষার্থী।


এন.আই.মিলন, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি– দিনাজপুরের বীরগঞ্জে শ্লীলতাহানির ঘটনা আপোশ মিমাংশার নামে বৈঠক বসিয়ে সংঘর্ষে ১০ জন আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।
উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের কৃষ্টপুর গ্রামের আইন উদ্দিন শুক্রবার বিকালে বীরগঞ্জ হাসপাতালে চিকিৎসাধী অবস্থায় জানায়, তাদের বাড়ী সংলগ্নে বীরগঞ্জ পৌর শহরের ফিসারী মোড় এলাকার বাসিন্দা ও সাব রেজিষ্ট্রার অফিসের ষ্টাম্প ভেন্ডার প্রতিবেশী প্রাক্তন পুলিশ হাফিজ করিম এর লিচু বাগান ও পুরাতন বাড়ী রয়েছে। ২৯ মে রাতে স্কুল ছাত্রী জান্নাতুন ও পেয়ারা পার্শ্ববর্তী একটি বাড়ীতে এশারের নামাজ আদায় করে ফিরার পথে লিচু বাগান অতিক্রম করার সময় হাফিজ করিমের কেয়ারটেকার সামিউল তাদের শ্লীলতাহানি ঘটিয়ে লিচুবাগানের পাহাড়াদার মামুনের নামে মিথ্যা অবৈধ সম্পর্কের অপবাদ ও লিচু চুরি অভিযোগ দেয়। এ ঘটনায় ৩০ মে হাফিজ করিম তার পুরাতন বাড়ীতে শ্লীলতাহানির ঘটনায় আপোশ মিমাংশার নামে বৈঠক বসালে উভয় পক্ষের কথা কাটা কাটির এক পর্যায়ে কেয়ারটেকার সামিউলের মা, ভাই হাফিজ করিমের সামনে আইন উদ্দিনদেন উপর হামলা চালিয়ে বাড়ীতে ঢুকে মারপিট করে নগদ ৮৫ হাজার টাকা, দুই ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার ও মোবাইল সেট ছিনিয়ে নিয়েছে। এতে আইন উদ্দিন (২৫) সহ আলাউদ্দিন (২৮), আবু বক্কর সিদ্দিক (৫৫), সাবিনা (৪৬) মোছাঃ সেনাভান (২০), আম্বিয়া বেগম (৩৬), সামিউল (২৬), আজগড় (৫৪), আজিজুল (১৯) ও চম্পা (১৮) আহত হয়। ঘটনার সময় প্রতিপক্ষের লোকেরা বলে আহতরা দাবী করেছে।এ রিপোট লেখা পযর্ন্ত আহতরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে এবং মামলার প্রস্তুতি চলছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) চতুর্থ ভিসি হিসেবে ড. নাজমুল আহসান কলিমুল¬াহকে আগামী চার বছরের জন্য নিয়োগ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। মহামান্য আচার্য মহোদয় এর সম্মতি ক্রমে সহকারী সচিব আব্দুস সাত্তার স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপন বৃহস্পতিবার দুপুরে জারি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় (বেরোবি) আইন ২০০৯ এর ১০(১) মোতাবেক ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের প্রো-ভিসি ড. নাজমুল আহসান কলিমুল¬াহকে আগামী ৪ বছরের জন্য বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসাবে নিয়োগ দেওয়া হলো।ড. নাজমুল আহসান কলিমুল¬াহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগের অধ্যাপক। তিনি বেসরকারি সংস্থা জাতীয় নির্বাচন পর্যবেক্ষক পরিষদ (জানিনপপ) এর প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান। এছাড়াও তিনি ডেইলি এশিয়ান এজ এর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

রংপুর জেলা ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল
ব্যুারো প্রধান: উন্নয়নের মহাসড়কে বাংলাদেশ সম্ভাবনা ও সমৃদ্ধির মেঘা বাজেট ও শিক্ষাবান্ধব ও উন্নয়নমূখী বাজেট প্রণয়ন করায় প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ জননেত্রী শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ রংপুর জেলা শাখা আনন্দ মিছিল বের করে। গতকাল শুক্রবার ১২টায় জেলা ছাত্রলীগ কার্যালয় থেকে আনন্দ মিছিল বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে জেলা কার্যালয়ের সামনে এসে সমাবেশ করেন। জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান সিদ্দিকী রনির সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল হাসান কানন এর পরিচালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ রংপুর জেলা শাখার সহ সভাপতি শাহীনুল ইসলাম গাজী, রোকনুজ্জামান সাগর, রাব্বী হাসান, যুগ্ম সম্পাদক মাসুদ আহমেদ, মোহায়মিনুল হাসিব, সাজিদুর রহমান সাদ্দাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আদনান হোসেন, আতিকুর রহমান অতিক, নূর মোহম্মাদ নুর, উপ দপ্তর সম্পাদক হাসানুল কবীর, উপ প্রচার সম্পাদক নাহিদ হাসান, সমাজসেবা সম্পাদক মাহবুব আলম রতন, তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক তানিম হাসান চপল, গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক নাহিদ, ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আল ইমরান অপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, জেলা ছাত্রলীগের সদস্য আরিফুজ্জামান আলিফ, তানজিমুল আলম টিপু, রতন, বিভিন্ন উপজেলা সভাপতি, সম্পাদক বৃন্দ।

রাজধানীর উপকণ্ঠ পূর্বাচলে একটি খাল থেকে বিপুল পরিমাণ আগ্নেয়াস্ত্র, বোমা ও গোলাবারুদ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার গভীর রাত থেকে গতকাল শুক্রবার দুপুর পর্যন্তউপশহরের ৫ নম্বর সেক্টরের ভুঁইয়াবাড়ি ব্রিজের কাছে গুতিয়াবো এলাকার খাল থেকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলের সহায়তায় এসব অস্ত্র-বিস্ফোরক উদ্ধার করা হয়েছে। এগুলোর মধ্যে আছে—৬১টি চায়না সাব-মেশিনগান (এসএমজি), সেভেন পয়েন্ট সিক্স টু বোরের পাঁচটি পিস্তল, দুটি রকেট লঞ্চার, ৪২টি হ্যান্ড গ্রেনেড, ৪৯টি মর্টার শেল, দুটি ওয়্যারলেস সেট, ১৫২৭ রাউন্ড গুলি, ৪৪টি ম্যাগাজিন ও ৪৯টি রকেট লঞ্চার প্রজেক্টর।

ঘটনাস্থলটি নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার আওতাধীন। জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) ও রূপগঞ্জ থানা পুলিশ প্রথমে অভিযান শুরু করলেও পরে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট, অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) ক্রাইম সিন ইউনিট, ফায়ার সার্ভিসসহ বিভিন্ন ইউনিট সেখানে যায়।পূর্বাচল উপশহরের ৫ নম্বর সেক্টরের ভুঁইয়াবাড়ি ব্রিজের কাছে গুতিয়াবো এলাকাটির এক পাশে পাঁচবাগেরটেক, অন্য পাশে দরগুতের বাজার। সেখানে ব্রিজের নিচ থেকে উত্তর দিকে বয়ে চলা খালের বাঁকে পানির ভেতরে পাওয়া গেছে অস্ত্রের মজুদ। সরেজমিনে দেখা গেছে, সকাল থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত অস্ত্র ও গোলাবারুদ তোলা হয়। এর পরও তল্লাশি চালায় ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। বিকেলে পুরো এলাকা ঘিরে রেখে বোমা নিষ্ক্রিয়করণের কাজ শুরু করে পুলিশ।নারয়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার মঈনুল হক বলেন, খালে (লেক) আরো অস্ত্র থাকতে পারে। এ জন্য সেচ দিয়ে দেখা হবে। ততক্ষণ পর্যন্ত পুরো এলাকা ঘিরে ফোর্স মোতায়েন থাকবে।

সংশ্লিষ্টরা জানায়, শরিফুল ইসলাম খান নামের স্থানীয় এক ব্যক্তিকে মাদক বিক্রির অভিযোগে গ্রেপ্তারের পর তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এই বিপুল পরিমাণ অস্ত্রের সন্ধান পায় পুলিশ। শরিফের তথ্যের ভিত্তিতে প্রথমে দুটি এসএমজি উদ্ধার করা হয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদে সে জানায়, খালে আরো বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও বিস্ফোরক আছে।অভিযানের সময় পূর্বাচল এলাকা থেকে সন্দেহভাজন আরো দুজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের মধ্যে একজনের নাম শান্ত বলে জানা গেছে। শরিফসহ তিনজনকে ডিবি পুলিশের হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। একই সঙ্গে অস্ত্র উদ্ধারের এলাকাটি ঘিরে রেখে বোমা তল্লাশি ও উদ্ধারকৃত বোমা নিষ্ক্রিয়করণের কাজ করছে পুলিশ। গতকাল রাত পর্যন্ত দুই ডজন বোমা নিষ্ক্রিয়করণের শব্দ শোনা গেছে। এদিকে অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় আশপাশের এলাকার বাসিন্দারা বিস্ময় প্রকাশ করেছে। তাদের মধ্যে চাপা আতঙ্কও বিরাজ করছে।পুলিশের মহাপরিচালক (আইজিপি) এ কে এম শহিদুল হকসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী অন্য কর্মকর্তাদের মধ্যে রয়েছেন—অতিরিক্তি আইজিপি (প্রশাসন) মোহাম্মদ মোখলেছুর রহমান, ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি শফিকুল ইসলাম, সিটিটিসি ইউনিট প্রধান মনিরুল ইসলাম, জেলা পুলিশ সুপার মঈনুল হক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোস্তাফিজুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফোরকান শিকদার, সহকারী পুলিশ সুপার (গ-সার্কেল) আবদুল্লাহ আল মাসুদ, র‌্যাব-১-এর সিবিসি-৩ কম্পানি কমান্ডার আবু হানিফ, র‌্যাব-১১-এর এসপি বাবুল আক্তার, নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের ডিএডি মামুনুর রশিদ প্রমুখ।

অভিযান চলাকালে গতকাল সকাল ১১টার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে আইজিপি সাংবাদিকদের বলেন, এক অপরাধীকে ধরার পর এই অস্ত্রের সন্ধান পাওয়া গেছে। বাংলাদেশ নিয়ে অনেক ধরনের ষড়যন্ত্র চলছে। দেশের স্বাধীনতা বিপন্ন ও উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করতে অপরাধী চক্র নাশকতার লক্ষ্যে এসব অস্ত্র ও গোলাবারুদ মজুদ রেখেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। গোয়েন্দা তত্পরতার কারণে এসব অস্ত্র পাওয়া সম্ভব হয়েছে। তদন্ত করে এর সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তার করা হবে।সিটিটিসি প্রধান মনিরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, ‘রূপগঞ্জে উদ্ধার করা অস্ত্র ও গোলাবারুদ রাজধানীর দিয়াবাড়ী থেকে উদ্ধার হওয়া অস্ত্র ও গোলাবারুদের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ। এগুলো একইভাবে লুকিয়ে রাখা হয়েছিল। ব্যাগগুলো একই ধরনের। ধারণা করা হচ্ছে, এটি একই গ্রুপের কাজ। অস্ত্রগুলো দেখে মনে হচ্ছে এগুলো সক্রিয়, সচল ও স্বয়ংক্রিয়। ধারণা করা হচ্ছে, এগুলো দুই-তিন মাস আগে এখানে রাখা হয়েছে। ’ জঙ্গিদের নাশকতার অস্ত্র কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এখন পর্যন্ত জঙ্গিদের যেসব অস্ত্র ও বিস্ফোরক উদ্ধার হয়েছে তার সঙ্গে এগুলোর মিল নেই। তার পরও আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখছি। ’

পুলিশের হাত থেকে পালিয়েছিল শরিফ : কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তা জানান, গত ৩০ মে রূপগঞ্জ থানার এসআই শফিক ও এএসআই শাহজাহান রূপগঞ্জের দাউদপুর ইউনিয়নের শেষ প্রান্তে বাগলা এলাকায় মাদক ব্যবসায়ী শরিফ খানের বাড়িতে অভিযান চালান। এ সময় শরিফের রান্নাঘরে একটি প্লাস্টিকের ড্রামের ভেতর থেকে কাপড়ে মোড়ানো একটি এসএমজি উদ্ধার করা হলেও শরিফ পালিয়ে যায়। গত বৃহস্পতিবার সকালে নারায়ণগঞ্জের চাষাঢ়া এলাকা থেকে নারায়ণগঞ্জ ডিবি পুলিশ তাকে আটক করে। শরিফকে জিজ্ঞাসাবাদে এই বিপুল পরিমাণ ভারী অস্ত্রের সন্ধান পাওয়া যায়। এরপর ডিবির পরিদর্শক মাহমুদুল ইসলাম ও রূপগঞ্জ থানার ওসি ইসমাইল হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ পূর্বাচল উপশহরের গুতিয়াবো আগারপাড়া এলাকার বালুচর থেকে প্রথমে দুটি এসএমজি উদ্ধার করে। দ্বিতীয় দফায় ভুঁইয়াবাড়ি ব্রিজসংলগ্ন খালের পানিতে অভিযান শুরু করলে একের পর এক অস্ত্র উঠে আসে।স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বাগলা এলাকার মৃত মোসলেম উদ্দিনের চার ছেলের মধ্যে শরিফ তৃতীয়। কয়েক বছর ধরে রূপগঞ্জের দাউদপুর ও পূর্বাচল উপশহর এলাকায় সে গড়ে তোলে মাদকের স্বর্গরাজ্য। এলাকায় কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী হিসেবে পরিচিতি লাভ করে। রূপগঞ্জ থানায় একাধিক মাদকের মামলা হয়েছে তার বিরুদ্ধে। গত বছরের নভেম্বর মাসে রূপগঞ্জ থানার এসআই আক্কাছ মাদক মামলায় গ্রেপ্তার করে তাকে নারায়ণগঞ্জ আদালতে পাঠান। পরে পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে সে আদালতপাড়া থেকে পালিয়ে যায়। এ সময় পুলিশ তার স্ত্রীকে আটক করলে শরিফ এক দিন পর পুলিশের কাছে ধরা দেয়। ওই মামলায় কয়েক মাস জেল খেটেছে শরিফ।পুলিশের তদন্ত কমিটি : অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় ১২ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে পুলিশ সদর দপ্তর। ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি মোহাম্মদ শফিকুল ইসলামকে প্রধান করে গঠিত কমিটিকে ১০ কার্যদিবসের মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে। গতকাল পুলিশ সদর দপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবনের ব্যাংকুয়েট হলে যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা, এতিম, শারিরীক প্রতিবন্ধী শিশু এবং আলেম উলেমাদের জন্য ইফতারের আয়োজন করেন। প্রধানমন্ত্রী অতিথিদের বিভিন্ন টেবিল ঘুরে ঘুরে তাদের কুশলাদি সম্পর্কে খোঁজ খবর নেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রী একটি এতিম শিশুকে নিজ হাতে ইফতার খাইয়ে দেন।  ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান, মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী একেএম মোজাম্মেল হক, সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ, মাওলানা ফরিদউদ্দিন মাসুদ এবং দেশের বিভিন্ন মসজিদ ও মাদ্রাসার বিশিষ্ট আলেম উলামা ইফতার অনুষ্ঠানে যোগ দেন।  ইফতারের আগে দেশ ও জাতির শান্তি, অগ্রগতি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম মওলানা মিজানুর রহমান মোনাজাত পরিচালনা করেন। অনুষ্ঠানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেসা মুজিব এবং ১৫ আগস্টে অন্যান্য শহীদ ও মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের আত্মার শান্তি কামনা এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু ও সুস্বাস্থ্য কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

ঢাকা, ২০ জ্যৈষ্ঠ (৩ জুন) : পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের অধীন মিল্ক ভিটা তরল দুধ ও ১০ ধরনের দুগ্ধ পণ্য সামগ্রী সহজে ন্যায্যমূল্যে ভোক্তাগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে সমবায় বিপণি উদ্বোধন করা হয়েছে। আজ পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মোঃ মসিউর রহমান রাঙ্গা রাজধানীর নিকেতন ও কলাবাগানে এ এস কে কো-অপ-শপ উদ্বোধন করে মগবাজারাস্থ ড্রিম প্যারাডাইজ কো-অপ-শপ আকস্মিক পরিদর্শন করেন । এ সময় পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব মাফরুহা সুলতানা, সমবায় নিবন্ধক আবদুল মজিদ ও মিল্ক ভিটা চেয়ারম্যান শেখ নাদের হোসেন লিপু উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া প্রতিষ্ঠান ‘মিল্ক ভিটা’ পণ্য নিয়ে কোন অনিয়ম বা গুণগতমানের ব্যাপারে কোন আপোশ করা হবে না। তিনি বলেন স্বাস্থ্য ও পুষ্টিকর দুগ্ধ এবং দুগ্ধজাত সামগ্রী রাজধানীর প্রতিটি ওয়ার্ড ও জেলায় কো-অপ শপের মাধ্যমে বিপণন করা হবে। ইত্যেমধ্যে ঢাকায় শতাধিক শপ স্থাপিত হয়েছে। তিনি বলেন মিল্ক ভিটার দুধ, মাখন, ঘি, আইসক্রিম ,দই, রাসমালাই, চকোলেট ও লাবাং গুণগতমানের ও সাশ্রয়ী মূল্যের । তিনি এসব সামগ্রী ক্রয় করে দেশের দুগ্ধ সমবায়ীদের জীবন মানোন্নয়নে সহায়তা করতে জনগণের প্রতি আহবান জানান।


রাজশাহী, ২০ জ্যৈষ্ঠ (৩ জুন) : বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিডা) নির্বাহী চেয়ারম্যান কাজী মোঃ আমিনুল ইসলাম বলেছেন, ওরা প্রতিবন্ধী নয়, ওরা বিশেষ প্রয়োজনের শিশু। যথাযথ শিক্ষা ও উপযুক্ত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা গেলে বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক শিশুদের দক্ষ মানবসম্পদ হিসেবে গড়ে তোলা যাবে। তখন তারা দেশ ও জাতির বোঝা না হয়ে আশীর্বাদ হিসেবে পরিগণিত হবে।তিনি আজ সকালে নগরীর পঞ্চবটীতে রাজশাহী বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক বিদ্যালয়কে উত্তরা মোটরস লিমিটেড এর পক্ষ থেকে মাইক্রোবাস প্রদান উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে ও তাঁর সুযোগ্যা কন্যা সায়মা ওয়াজেদ পুতুলের তত্ত্বাবধানে বর্তমান সরকার বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক শিশুদের উন্নয়নে যেসব যুগান্তকারী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন তা বিশ্ব দরবারে ব্যাপকভাবে প্রশংসিত ও সমাদৃত হয়েছে।রাজশাহী জেলা প্রশাসক মোঃ হেলাল মাহমুদ শরীফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার মোঃ নুর উর রহমান এবং উত্তরা মোটরস লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ মতিউর রহমান।

চেয়ারম্যান বলেন, বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক শিশুদের মাঝে সহযোগিতা ও সহমর্মিতার হাত বাড়িয়ে দেয়া শুধু আমাদের মানবিক ও নৈতিক কর্তব্য নয়, বরং এটা আমাদের সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব। তিনি উত্তরা মোটরস লিমিটেডের চেয়ারম্যানকে তাদের কর্পোরেট সামাজিক দায়িত্বের অংশ হিসেবে এ ধরনের মহতী কাজে এগিয়ে আসার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানান। তিনি আশা প্রকাশ করেন, উত্তরা মোটরস লিমিটেডের এ উদ্যোগ বেসরকারি খাতকে এ ধরনের সামাজিক কাজে আরো বেশি হারে অংশগ্রহণের জন্য উদ্বুদ্ধ ও অনুপ্রাণিত করবে।পরে বিডা’র নির্বাহী চেয়ারম্যান প্রতিষ্ঠানটির মাঝে আনুষ্ঠানিকভাবে মাইক্রোবাসের চাবি হস্তান্তর করেন। মাইক্রোবাসটি বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের যাতায়াতসহ আনুষঙ্গিক কাজে ব্যবহার করা হবে।