Category: ভিতরের পাতা

বখাটেদের খপ্পরে রাবি শিক্ষার্থীঃ ছিনতাইয়ের শিকার


রাবি প্রতিনিধি:
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এক শিক্ষার্থীকে ভয়-ভীতি দেখিয়ে টাকাসহ মোবাইল ছিনতাই করেছে স্থানীয় বখাটেরা। শুক্রবার রাতে ঐ শিক্ষার্থীর কাছ থেকে নগত অর্থের পাশাপশি তার বাড়িতে ফোন করে টাকা আদায় করে বখাটেরা। পরে অবশ্যই ছাত্রলীগের সহযোগিতায় টাকা ফেরত পায়।
ভূক্তভোগী নাজমুস সাকিব ইনস্টিটিউট অব বিজনেস এডমিনিস্ট্রেশন (আইবি) ১৫ ব্যাচ এর ইভেনিং-এর ছাত্র।
নাজমুস সাকিব বলেন, ‘সন্ধ্যায় রাজশাহী শহরে বাটার মোড়ে আমার বান্ধবীর সাথে আসছিলাম। হঠাৎ পিছন থেকে দুইজন আমাকে ডাক দিয়ে কথা বলতে চাই। এসময় বন্ধবীকে আমি চলে যেতে বলি। পরে তারা আমাকে বলে তোকে মারার জন্য আমাদের ত্রিশ হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে। এছাড়া নানা কথা বলে হুমিক দিয়ে এবং আমার মোবাইল দুইটা কেড়ে নেই। তারা বাটার মোড় থেকে আমাকে হাটিয়ে ভদ্রার মোড়ে ভাংড়ি পোট্রি এলাকায় নিয়ে বিশ হাজার টাকা দাবি করে। তখন আমার কাছে থাকা দেড় হাজার টাকা নিয়ে আমার বাড়িতে ফোন দেয় এবং মায়ের কাছে টাকা দাবি করলে দশ হাজার টাকা বিকাশ করে দেয়। পরে আমাকে দুইশত টাকা হাতে ধরিয়ে ছেড়ে দেয়।’
ঐ শিক্ষার্থী আরো জানান, ‘ছিনতাইয়ের পরে আজ সকালে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু ভাইকে জানালে তিনি কয়েকজনকে পাঠিয়ে আমার টাকা উদ্ধারের ব্যবস্থা করে দেয়। পরে জানতে পারি ছিনতাই দুইজন হচ্ছে রেন্টু ও মুসাদ, তাদের বাড়ি বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন মেহেরচন্ডী এলাকায়।’
বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু বলেন, ‘ছাত্রলীগ সব-সময় সাধারণ শিক্ষার্থী পাশে থাকে। তারই ধারাবাহিকতায় আজ সকালে ছিনতাইয়ের ঘটনাটি জানতে পেরে কয়েকজন নেতা-কর্মীকে পাঠায় এবং ঐ শিক্ষার্থীর একটা মোবাইল নম্বরের মাধ্যমে অপরাধীদের খুঁজে বের করি। তারা সবাই মেহেরচন্ডী এলাকার বখাটে ছেলে।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে আইটি সোসাইটির নতুন কমিটি সভাপতি মাখদুম সম্পাদক অনিক


কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি:
কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় আইটি সোসাইটি’র ১ম কার্যনির্বাহী পরিষদ-২০১৭ গঠন করা হয়েছে আজ। কমিটিতে সভাপতি হয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি(আইসিটি) বিভাগের ৭ম ব্যাচের শিক্ষার্থী সাইয়েদ মাখদুম উল্লাহ এবং সাধারণ সম্পাদক হয়েছে কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল (সিএসই) বিভাগের ৮ম ব্যাচের শিক্ষার্থী ফাহমিদ হাসান অনিক। শনিবার ক্যাম্পাসে এক সংবাদ সম্মেলনে সোসাইটি’র আহবায়ক সাইফুল ইসলাম ৪৫ সদস্য বিশিষ্ট এ কমিটি ঘোষণা করেন।
কমিটিতে অর্থ সম্পাদক হয়েছেন হরিদাস চক্রবর্তী পংকজ, সাংগঠনিক সম্পাদক তৌহিদুর রহমান ভূঁইয়া ও দপ্তর সম্পাদক হয়েছেন মাসুদ আহমেদ। আগামী এক বছরের জন্য এ কমিটি গঠন করা হয়। শুরু থেকে আইটি সোসাইটি বিশ্ববিদ্যালয়ে তথ্য ও প্রযুক্তি মূলক অনেক কর্মসূচি পালন করে আসছে। গেল বছরের ২০ জুলাই কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় আইটি সোসাইটি গঠন করা হয়। বর্তমানে সোসাইটি সদস্য সংখ্যা প্রায় ছয় শতাধিক।

জরুরী প্রসূতি সেবায় চট্টগ্রাম বিভাগের হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স শ্রেষ্ঠত্বের আসন অধিকার অর্জন

মোহাম্মদ হোসেন,হাটহাজারী,
চট্টগ্রাম বিভাগের হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স শ্রেষ্ঠত্বের আসন অধিকার অর্জন করায় পুরস্কৃত করছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। ২০১৬ সালে জরুরী প্রসূতি সেবায় বিশেষ অবদানের জন্য এ পুরস্কার পেেেয়ছেন প্রতিষ্ঠানটি। চিটি পেয়েছেন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্মকর্তা ডাঃ ফজলে রাব্বী।
গত রোববার(১৬ জুলাই) বেলা ১১টায় ঢাকার সোনারগাঁও হোটেলের বলরুমে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এ পুরস্কার হস্থান্তর করেন। পুরস্কার পেয়ে ডাঃ ফজলে রাব্বী এ প্রতিবেদককে বলেন,হাসপাতালের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী বৃন্দ,হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য বৃন্দ,স্বাস্থ্য সেবাদানকারী সকল এনজিও,সকল মিডিয়া কর্মী ও হাটহাজারীর আপামর জনসাধারণ সার্বিক সহযোগিতায় আজকের এই অর্জন।
এ দিকে সফলতার পিছনে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্মকর্তা ডাঃ ফজলে রাব্বীর অবদান এবং পাশাপাশি হাসপাতালের কর্মরত সকল চিকিৎসক ও কর্মচারীদের অবদান। এতে সবাইকে অভিনন্দন জানান হাটহাজারী উপজেলার বিভিন্ন স্থরের মানুষ। আগামীতে এই হাসপাতালে স্বাস্থ্য সেবা আরো উন্নত হতে পারে সে জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও চিকিৎসকদের প্রতি অনুরোধ জানান হাটহাজারীবাসী।

ফুলবাড়ীয়ায় স্কুল ছাত্রের রহস্যজনক মৃত্যু


ফুলবাড়ীয়া (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ঃ মঙ্গলবার ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়া পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডে সোহরাওয়ার্দী হক শায়ন (১৫) নামে এক স্কুল ছাত্রের গলায় ফাঁস দিয়ে রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। জানা যায়, ঘটনার ১ দিন পূর্বে ফেসবুক চালাতে নিষেধ করায় মা পাপিয়া সুলতানার সাথে শায়নের তর্ক-বিতর্ক হয়। ঘটনার দিন শায়ন স্কুল থেকে পরীক্ষা দিয়ে বাসায় ফিরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। ঘটনাস্থলে খোঁজ-খবর নিয়ে জানা গেছে, শায়নের বাবা আজাহারুল ইসলাম ঢাকায় নাভানা গ্র“পে চাকুরীতে কর্মরত। মা পাপিয়া সুলতানা ছেলে-মেয়ের লেখাপড়ার জন্য গ্রামের বাড়ি উপজেলার বালিয়ান ইউনিয়নের শুরেরপাড় থেকে এসে পৌর সদরে একটি বাসা ভাড়া নিয়ে গত মে মাস থেকে বসবাস করে আসছে। শায়ন ফুলবাড়ীয়া পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে ৯ম শ্রেণীর ছাত্র। শায়নের আত্মহত্যার ঘটনার পেছনে শায়নের মায়ের পরকীয়ার কারণ রয়েছে বলে স্থানীয়রা ধারণা করছে।
ফুলবাড়ীয়ায় দুই নকলনবীশ সাময়িক বরখাস্ত
ফুলবাড়ীয়া (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ঃ নিবন্ধন পরিদপ্তর মহাপরিদর্শকের নিকট ফুলবাড়ীয়ায় সাবরেজিষ্ট্রার অফিসের ষাট বছর পূর্তি হওয়ায় নকলনবীশদের বাতিলকরণ আবেদন করায় সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন দুইজন নকলনবীশ। জানাগেছে, ফুলবাড়ীয়া সাবরেজিষ্ট্রার অফিসের নকলনবীশদের পক্ষে মোঃ সাইফুল ইসলাম ২২ মে উপজেলা সাবরেজিষ্ট্রার ও ৪ জুলাই জেলা রেজিষ্ট্রার বরাবর ষাট বছর পূর্তি হওয়ায় নকলনবীশদের বাতিলকরণ আবেদন করেন। উপজেলা ও জেলা কর্মকর্তা কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় ১১ জুলাই মহাপরিদর্শকের কাছে আবেদন করেন। অফিসের নকলনবীশ হুমায়ূন কবীরকে শারীরিক লাঞ্চিত, বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি ও প্রশাসনিক কাজে বিঘœ সৃষ্টি করার অভিযোগে নকলনবীশ মোঃ সাইফুল ইসলাম ও ভরত চন্দ্র দেবনাথকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয় এবং পত্র প্রাপ্তীর ৫ দিনের মধ্যে উপজেলা সাবরেজিষ্ট্রারের মাধ্যমে জেলা রেজিষ্ট্রার বরাবর সন্তোষজনক জবাব দেওয়ার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন। রবিবার দুপুরে মোঃ সাইফুল ইসলাম ও ভরত চন্দ্র দেবনাথ উপজেলা সাবরেজিষ্ট্রারের বরাবরে লিখিত জবাব দিতে গেলে তিনি রিসিভ করেনি বলে জানান অভিযুক্ত সাইফুল ইসলাম ও ভরতচন্দ্র দেব নাথ। নকলনবীশ সাইফুল ইসলাম বলেন, আইন,বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় ষাট বছর পূর্তি হওয়ায় নকলনবীশদের নিয়োগ বাতিল করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ উপেক্ষিত হওয়ায় নকলবীশদের পক্ষে ষাট বছর পূর্তি হওয়ায় নকলনবীশদের বাতিলকরণ করার জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরে আবেদন ও হাইকোটে একটি রিট পিটিশনকে কেন্দ্র করেই আমাদেরকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। তিনি সাময়িক বরখাস্তের ঘটনাটি সুষ্ঠ তদন্তদাবী করছেন। উপজেলা সাব রেজিষ্ট্রার মোঃ ইসমাইল হোসেন বলেন, ষাটউর্দ্ধ নকলনবীশদের বাতিলকরণ বিষয়ের সাথে সাময়িক বরখাস্তের কোন সম্পর্ক নেই, অফিসিয়ালভাবে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করায় তাদেরকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।
ফুলবাড়ীয়ায় মৎস্য দিবসের র‌্যালী ও আলোচনা সভা
ফুলবাড়ীয়া (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ঃ বুধবার ফুলবাড়ীয়ায় জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের র‌্যালী শেষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আলোচনা সভায় ইউএনও লীরা তরফদারের সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা প্রণব কুমার কর্মকার। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন,উপজেলা চেয়ারম্যান এডভোকেট আজিজুর রহমান, আ’লীগ নেতা এডভোকেট ইমদাদুল হক সেলিম, কৃষি অফিসার ড. নাসরিন আক্তার বানু, মোঃ হারুন অর রশিদ প্রমূখ।

ভালুকায় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা


ইতি শিকদার, ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের ভালুকায় “মাছ চাষে গড়বো দেশ বদলে দেব বাংলাদেশ” প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে উপজেলা মৎস্য দপ্তরের আয়োজনে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। (১৯জুলাই) বুধবার দুপুরে র‌্যালীটি উপজেলা পরিষদ চত্তর থেকে বের হয়ে পৌর এলাকার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে উপজেলা পরিষদ চত্তরে এসে শেষ হয়। পরে উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন খানের সভাপতিত্বে সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা রুমানা শারমিন এর সঞ্চালনায় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যার গোলাম মোস্তফা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মনিরা সুলতানা মনি, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের আহবায়ক ও সফল মৎস্য চাষী সাদেকুর রহমান তালুকাদার সহ মৎস্য চাষীরা বক্তব্য রাখেন। পরে উপজেলা পরিষদ পুকুরে পাবদা মাছের পোনা অবমুক্ত করা হয়।

শাহজালাল বিমানবন্দরে ৪৮ লাখ টাকা সোনা ও বিদেশী সিগারেট উদ্বার ॥ এক যাত্রী আটক


এস,এম মনির হোসেন জীবন : ঢাকা হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৃথক দু’টি ঘটনায় ৮৬৭ গ্রাম স্বর্ণলংকার ও ২০৪ কার্টুন আমদানী নিষিদ্ব বিদেমী সিগারেট উদ্বার করেছে বিমানবন্দর কাস্টম হাউক কর্তৃপক্ষ। এঘটনায় মো: বিল্লাল হোসেন নামে এক যাত্রীকে আটক করা হয়েছে। উদ্বার করা সোনা ও সিগারেটের বর্তমান বাজার মূল্য প্রায় ৪৮ লাখ টাকা।
আজ বৃহস্পতিবার বিমানবন্দরের গ্রিন চ্যানেল এলাকা ও ৫ নম্বর বেল্ড এলাকায় পৃথক পৃথক অভিযান চালিয়ে স্বর্ণলংকার ও বিদেশী সিগারেট আটকের ঘটনাটি ঘটে।
আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা কাস্টমস হাউজের সহকারী কাস্টমস কমিশনার মো: আল আমিন এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
বিমানবন্দর কাস্টমস হাউজের সহকারী কাস্টমস কমিশনার (এসি) এইচ,এম আহসানুল কবীর আজ জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স (বিজি-০৮৭) নম্বরের বিমানটি ঢাকায় পৌছায়। আর ওই বিমানের যাত্রী ছিলেন মো: বিল্লাল হোসেন। যাত্রী বিল্লাল হোসেন বিমানবন্দরে নেমে তার সাথে থাকা মালামাল নিয়ে গ্রিন চ্যানেল এলাকা দিয়ে বাহিরে বের হচিছল। তখন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে বিমানবন্দর ঢাকা কাস্টমস হাউজের কর্মকর্তারা তাকে চ্যালেন্স করে এবং কোন সোনা আছে কিনা সেটি জানতে চান। জিঞ্জাসাবাদে মালয়েশিয়া ফেরত যাত্রী মো: বিল্লাল হোসেন তার নিকট কোন সোনা নেই বলে অস্বীকার করেন। পরে বিমানবন্দর কাস্টমস হাউজের কর্মকর্তারা তার সাথে অনা লাগেজ স্ক্যানিং করার পর তার মধ্যে সোনা রয়েছে বলে তার প্রমান পাওয়া যায়। পরবর্তীতে ব্যাগেজ কাউন্টারে এনে তার লাগেজ তল্লাশী চালিয়ে ডিটারজেন্ট পাউটানের ভেতরে পাইপের মধ্যে বিশেষ ভাবে লুকায়িত অবস্থায় ৭৬৮ গ্রাম সোনা পাওয়া যায়। তার মধ্যে ৬২টি সোনার টুকরো রয়েছে। এছাড়া ১৩টি সোনার আংটি ও সোনার চেইন আছে। যার ওজন ৯৯ গ্রাম। আটক করা সোনার বর্তমান বাজার মূল্য প্রায় ৪৩ লাখ টাকা বলে আজ বাসসকে জানিয়েছে ঢাকা কাস্টমস হাউজ কর্তৃপক্ষ।
অপর দিকে, আজ বৃহস্পতিবার সকালে বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স (বিজি-০৮৭) নম্বরের বিমানের কোন এক যাত্রী বিমানবন্দরে লাগেজ ডেলিভারীর ৫ নম্বর বেল্ড এলাকা থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় ২টি লাগেজ উদ্বার করে। পরে বিমানবন্দর কাস্টমস হাউজের কর্মকর্তারা ওই দু’টি লাগেজের ভেতর থেকে ২০৪ কার্টুন আমদানী নিষিদ্ব বিদেশী সিগারেট পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্বার করেন।
বিমানবন্দর কাস্টমস হাউজের সহকারী কাস্টমস কমিশনার মো: আল আমিন আজ আর ও জানান, কাস্টমস কর্মকর্তাদের অভিযানের টের পেয়ে চোরাকারবারিরা কৌশলে বিদেশী সিগারেট ভর্তি দু’টি লাগেজ ফেলে রেখে গা ঢাকা দেয়। উদ্বার হওয়া বিদেশী সিগারেটের বাজার মূল্য প্রায় ৫ লাখ টাকা। এঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে আটক করা হয়নি। উদ্বারকৃত সোনা ও সিগারেট কাস্টমস এর হেফাজতে আছে। আজ পৃথক পৃথক ঘটনায় প্রায় ৪৮ লাখ টাকার সোনা ও সিগারেট জব্দ করা হয়েছে। আজ পৃথক ঘটনায় সোনা সহ মো: বিল্লাল হোসেনকে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিক জিঞ্জাসাবাদে সে সোনা আনার কথা স্বীকার করেছে। যাত্রী বিল্লাল হোসেনের বিরুদ্বে প্রয়োজনীয় আইননানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে।

কুবিতে দিন দিন বাড়ছে পাহাড়ি সাপের উপদ্রব

কুবি প্রতিনিধি :

লাল মাটির ছোট-বড় পাহাড় ও টিলায় ঘেরা কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়(কুবি)। ক্যাম্পাসের মধ্যে আনাচে কানাচে বিভিন্ন ঝোপ-ঝাড় ও টিলা থাকায় পাহাড়ি বিষধর সাপের উপদ্রব দিন দিন বেড়েই চলছে। আবাসিক হল, রাস্তা-ঘাটসহ বিভিন্ন স্থানে এসব সাপের উপদ্রবে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।
ক্যাম্পাস ঘুরে দেখা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলোর আশপাশসহ ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থান ঝোঁপ-ঝাড়ে পূর্ণ হয়ে আছে। প্রচন্ড গরমের কারণে সন্ধ্যার পর এসব পাহাড়ি বিষধর সাপ ঝোঁপ-ঝাড় থেকে বের হয়ে আবাসিক হল, রাস্তা-ঘাটসহ বিভিন্ন স্থানে ঘুরে বেড়াচ্ছে। ফলে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা সাপ আতঙ্কে দিন পার করছে। এছাড়া আবাসিক হল গুলোর বিভিন্ন রুম থেকেও মারা হচ্ছে বিষধর সাপ।
বিশ্ববিদ্যালয়ের একমাত্র ছাত্রী হল নওয়াব ফয়জুন্নেসা হলের আবাসিক শিক্ষার্থী মাহ্্ফুজা আক্তার বলেন, ‘শনিবার রাতে হলের ১০৬ নং কক্ষের ভেতরে একটি বিষাক্ত সাপ প্রবেশ করে। এসময় শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পরে নিরাপত্তা কর্মীরা সাপটিকে মেরে ফেলে। এর আগেও ১০৮ নং কক্ষ থেকে সাপ মারা হয়।’
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের এক আবাসিক শিক্ষার্থী জানান, ‘সোমবার মধ্যরাতে হলের তিন তলায় একটি বিষাক্ত সাপ দেখতে পেলে শিক্ষার্থীরা তাৎক্ষণিক লাঠি দিয়ে সাপটি মেরে ফেলে।’
এছাড়াও একাধিক শিক্ষার্থী অভিযোগ করে বলেন, ‘ক্যাম্পাস ঝোঁপ-ঝাড়ে ভরে গেছে। ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরে আলোক স্বল্পতা, ড্রেনগুলো ও ঝোঁপ-ঝাড় নিয়মিত পরিষ্কার না করাই সাপ বেড়ে যাওয়ার মূল কারন। সাপের ব্যাপক উপদ্রব হওয়ায় আবাসিক হলে বিশেষ করে নিচ তলায় অবস্থান আতঙ্কজনক হয়ে উঠেছে। যেভাবে সাপ বের হচ্ছে তাতে পথে ঘাটে চলাচলও ঝুঁকি পূর্ণ হয়ে যাচ্ছে। সন্ধ্যায় ক্যাম্পাসের অড্ডাস্থলে বা শহিদ মিনারে, মাঠে বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডায় সাপ আতঙ্ক বিরাজ করে। এজন্য সাপ নিধনে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি।’
এ বিষয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের প্রভোস্ট দুলাল চন্দ্র নন্দী বলেন, ‘আমি দ্রুত সাপ রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিব। আমরা ২/১ দিনের মধ্যেই বিষয়টি নিয়ে বসবো। সাপ তো একেবারে নিধন করা সম্ভব না তাই সকলকেই সতর্ক থাকতে হবে। নিরাপত্তা কর্মীদেরও এ বিষয়ে নজর রাখতে বলা হয়েছে। ’

গাজীপুরে ভোটার তালিকা হালনাগাদ উপলক্ষে সমন্বয় সভা

মুহাম্মদ আতিকুর রহমান (আতিক), গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি ঃ

গাজীপুর জেলা প্রশাসন ও জেলা নির্বাচন অফিসের উদ্যোগে ১৮ জুলাই মঙ্গলবার দুপুরে জেলা প্রশাসনের ভাওয়াল সম্মেলন কক্ষে ছবিসহ ভোটার তালিকা হালনাগাদ-২০১৭ উপলক্ষে জেলা সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
জেলা প্রশাসক ডঃ দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীরের সভাপতিত্বে জেলা সমন্বয় কমিটির সদস্যবৃন্দ এতে অংশগ্রহণ করেন।
আগামী ২৫ জুলাই থেকে ৯ মে পর্যন্ত এ কার্যক্রম চলবে। তথ্য সংগ্রহকারীগণ বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটার যোগ্য ভোটারদের তথ্য সংগ্রহ এবং মৃত ব্যক্তিদের নাম কর্তনের তথ্য সংগ্রহ করবেন। ভোটার তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্তি, কর্তন ও স্থানান্তরের জন্য নির্ধারিত ফরম পূরণসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্রাদি সংগ্রহ করবেন।
২০ আগস্ট হতে ৫ নভেম্বর পর্যন্ত ২০০০ সালের ১ জানুয়ারি বা তার পূর্বে অথচ বিগত ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রমে বাদ পড়াদের তথ্য সংগ্রহ করা হবে।
২৫ নভেম্বর হতে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত উপজেলা ও থানা নির্বাচন অফিসারের কার্যালয়ে ভোটার এলাকা স্থানান্তরের আবেদন গ্রহণ, মৃত ভোটারদের নাম কর্তনের তথ্যাদি সংক্রান্ত (বিভিআরএস) বাংলাদেশ ভোটার রেজিস্ট্রেশন সফটওয়্যারের সাহায্যে ডাটা এন্ট্রি ও ডাটা আপলোড করা হবে।
২ জানুয়ারি, ২০১৮ হালনাগাদকৃত খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হবে। ২০১৮ সালের ১৭ জানুয়ারি তারিখের মধ্যে দাবি, আপত্তি ও সংশোধনের জন্য আবেদন দাখিল করতে হবে এবং নিষ্পত্তির শেষ তারিখ ২২ জানুয়ারি, ২০১৮। হালনাগাদ চুড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশিত হবে ২০১৮ সারের ৩১ জানুয়ারি। ভোটার ফরম পূরণ ও নিবন্ধনের জন্য জন্মসনদ, পাসপোর্ট, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সনদপত্র দেখাতে হবে।
জেলায় তিন ধাপে রেজিস্ট্রেশনের কাজ সম্পন্ন করা হবে। প্রথম ধাপে কাপাসিয়া ও কালীগঞ্জ উপজেলা, দ্বিতীয় ধাপে কালিয়াকৈর ও শ্রীপুর উপজেলা ও তৃতীয় ধাপে গাজীপুর সদর ও টঙ্গী এলাকা।
২০ আগস্ট থেকে পর্যায়ক্রমে ৫ নভেম্বর পর্যন্ত নিবন্ধনকেন্দ্রে নিবন্ধন করা হবে বলে সভায় জানানো হয়।
সভায় বক্তারা বিষয়টি অধিক জন গুরুত্বসম্পন্ন এবং স্পর্শকাতর উল্লেখ করে বলেন, এর কাজ নির্ভুল এবং সংশ্লিষ্ট সকলের সার্বিক অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে। এজন্য এলাকায় মাইকিং ও ক্যাবল টিভির সাহায্যে ব্যাপক প্রচারণা চালানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
এছাড়া মসজিদের ইমাম ও খতিব, জনপ্রতিনিধি ও সাংবাদিকদের রিপোটিং এর মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে সচেতন করার জন্য পরামর্শ দেয়া হয়।

ঝিনাইদহে রেল লাইনের দাবীতে কলেজ ছাত্রের অনশন মাঠে নেই রাজনৈতিক দল!

ঝিনাইদহ জেলা সংবাদদাতাঃ ঝিনাইদহ জেলা শহরে রেল লাইন নির্মানের দাবীতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কিছু মানুষ সক্রিয় হলেও মাঠে নেই রাজনীতিবিদরা। ফলে রেল যোগাযোগের মুল শ্রোতধারা থেকে কি ঝিনাইদহ ঝিনাইদহ বিচ্ছিন্ন হতে যাচ্ছে? এমন আশংকা ব্যক্ত করেছেন বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ। জেলার মানুষের মধ্যে চাপা ক্ষোভ থাকলেও নেতৃত্বের অভাবে কোন আন্দোলন বা সংগ্রাম লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। অবশ্য গত বছর নাগরিক কমিটিসহ বিভিন্ন সংগঠনের ব্যানারে মানুষ মানববন্ধন ও জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেন। তবে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক মাগুরা জেলাকে রেল লাইনের আওতাভুক্ত করার ঘোষনার পর তীব্র কোন পতিক্রিয়া পাওয়া যাচ্ছে না। আওয়ামীলীগ, বিএনপি, জাতীয়পার্টি, ওয়ার্কাসপাটি ও জাসদসহ বিভিন্ন রাহনৈতিক দলের এ বিষয়ে জোটবদ্ধ আন্দোলন মানুষ আশা করছেন এমন কথাও চায়ের দোকানে আলোচিত হচ্ছে। এ বিষয়ে সুশিল সমাজের প্রতিনিধি হিসেবে মানুষ যাদের মানেন বা জানেন তারা অচিরেই মাঠে নামবেন বলে আভাস পাওয়া গেছে। ঝিনাইদহ পোষ্ট অফিস মোড়ে দাড়িয়ে থাকা রেজাউল ইসলাম আলী নামে এক রিক্সা চালক মনে করেন, রেল লাইনের দাবীতে সবাইকে ঝাপিয়ে পড়া উচিৎ। কারণ ঝিনাইদহ শহরে এক সময় রেললাইন ছিল। একই কথা জানালেন, হরিণাকুন্ডু থেকে ঝিনাইদহ শহরে আসা আব্দুস সাত্তার। তিনি বলেন, রাজনীতিবিদরা মাঠে না নামলে এই আন্দোলন বেগবান হবে না। ঝিনাইদহের মানবাধিকার কর্মী, সাংবাদিক ও নারিকেলবাড়িয়া কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ আমিনুর রহমান টুকু বলেন, আমরা নতুন করে আন্দোলনের কর্মসুচি নিয়েছি। মঙ্গলবার নারী মুক্তি আন্দোলনের ব্যানারে একটি মানববন্ধন হবে। এরপর আমরা রেল লাইন ঘোষনা না দেওয়া পর্যন্ত আন্দোলন থামাবো না। ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি এড আজিজুর রহমান জানান, আমরা অচিরেই দলীয় ভাবে মানববন্ধন কর্মসুচির মাধ্যমে ঝিনাইদহে রেললাইন স্থাপনের দাবী সরকারকে জানাবে। তিনি বলেন, রেললাইন এখন ঝিনাইদহের মানুষের প্রাণের দাবী। ঝিনাইদহ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক জানান, ঝিনাইদহে রেললাইনের দাবীতে করা আন্দোলনের সাথে আমরা একাতত্মা ঘোষনা করেছি। আমাদের নেতাকর্মীরা বিভিন্ন সময় সামাজিক সংগঠনগুলোর কর্মসুচিতে অংশ নিচ্ছি। এদিকে ঝিনাইদহে রেল লাইনের দাবীতে অনশন পালন করছেন আব্দুল্লাহ নামে এক কলেজ ছাত্র। ঝিনাইদহ শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মঙ্গলবার সকাল থেকে তিনি অনশনে বসেছেন। ঝিনাইদহ শহরের কাঞ্চনপুর গ্রামের বাসিন্দা কলেজ শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ প্রতিদিন সকাল ৯ টা থেকে থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত এ কর্মসূচী পালন করবেন বলে জানান। আব্দুল্লাহর ভাষ্যমতে, পদ্মা পাড় থেকে রেল লাইনটি মাগুরা হয়ে যশোরে মিলিত হচ্ছে। কিন্তু এতে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের প্রবেশদার ঝিনাইদহ রেল লাইন থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। তাই মাগুরার সাথে ঝিনাইদহ সদর  হয়ে চুয়াডাঙ্গা পর্যন্ত রেল লাইনের দাবী জানান তিনি।

নওগাঁর নীতপুর সীমান্তে বিজিবি‘র মতবিনিময় সভা

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ নওগাঁর নীতপুর সীমান্তে বিজিবি‘র মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার নীতপুর বিওপির নিকটবর্তী নীতপুর ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে ১৪ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন কর্তৃক আয়োজিত ‘‘সীমান্ত হত্যা, সীমান্ত দিয়ে অবৈধ অনুপ্রবেশ, জঙ্গিবাদ, মাদকদ্রব্য, গবাদি পশু চোরাচালান এবং নারী ও শিশু পাচার প্রতিরোধে সীমান্তবর্তী জনসাধারণকে সতকর্তা ও উপদেশমূলক মতবিনিময় সভা’’ এর আয়োজন করা হয়।

উক্ত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ১৪ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন এর অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ খিজির খান, ইঞ্জিনিয়ার্স। এসময় বিশেষ অতিথি হিসাবে পোরশা উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আনোয়ারুল ইসলাম, পোরশা থানার আফিসার ইনচার্জ মোসাব্বেরুল হক, নীতপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবুল কালাম শাহ চৌধুরী সহ মেম্বার, শিক্ষক, মসজিদের ইমাম এ সময় উপস্থিত ছিলেন। উক্ত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি সীমান্ত সমস্যা তুলে ধরেন এবং সীমান্তে হত্যা, অবৈধভাবে সীমান্ত পারাপার, কাঁটাতারের বেড়া কাটা, মাদকদ্রব্য ও গবাদি পশু চোরাচালান এবং সম্প্রতি জঙ্গি হামলার বিষয়সহ অন্যান্য যে কোন ধরণের অনাকাঙ্খিত কার্যকলাপে লিপ্ত না হওয়ার জন্য সকলকে অনুরোধ করেন


সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: এ্যাডভোকেট শেখ মোঃ আব্দুল্লাহ
সম্পাদক-প্রকাশক : শেখ মোঃ তৈয়াবুর রহমান॥

যুগ্ম সম্পাদক: এস এম শাহিদুল আলম॥ সহযোগী সম্পাদক: শেখ মোঃ আরিফ আল আরাফাত
সহ-সম্পাদক: (প্রশাসন) হাজী হাবিবুর রহমান শাহেদ: সহ সম্পাদক: আজমাল মাহমুদ
সম্পাদক কর্তৃক বাড়ী বাড়ী নং- ৫৩/২, ৪র্থ তলা, রাজ-নারায়ন-ধর রোড, কিল্লার মোড় বাজার, লালবাগ, ঢাকা-১২১১
ফোন: ০১৯১৮-২০১৬২৬, ফোন: ০১৭১৫-৯৩৩১৬৮
ই-মেইল- notunvor.news@gmail.com
Designed By Hostlightbd.com
| Cyberboss.org
Translate »