Category: ভিতরের পাতা

বড় ভাই বউ নিয়ে আলাদা ! অসুস্থ বাবা-মা বোনের মুখে খাবার দিতে রিকশা চালক শিশু নবীগঞ্জে ১২বছরের শিশুর কাঁধে সংসারের বোঝা

ছনি চৌধুরী,হবিগঞ্জ প্রতিনিধি ॥॥
কাওছার আহমেদ বয়স মাত্র বারো। তার বেড়ে ওঠা অন্য শিশুদের চেয়ে অনেক আলাদা। মনে নেই আনন্দ মুখে নেই হাসি । ভাগ্য তাকে স্কুল থেকেও ফিরিয়ে এনেছে সংসারের ঘানি টানার নরকে। এখন আর বড় কিছু হওয়ার স্বপ্ন দেখে না কাওছার। কেবল অসুস্থ বাবা-মা আর এক বোনকে নিয়ে বেঁচে থাকার চেষ্টা তার। শিশু কাওছার আহমেদ নবীগঞ্জ উপজেলার বাউসা ইউনিয়নের গহরপুর গ্রামের মো. মাস্টর মিয়ার ছেলে। স্থানীয় দৌলতপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে কাওছার ঝরে পড়েছে অভাবের নির্মম কষাঘাতে। যে বয়সে বই-খাতা হাতে স্কুলে যাবে, আনন্দে-উৎসবে বেড়ে উঠবে শৈশব, সেই ছোট্ট বয়সে তাকে ধরতে হয়েছে সংসারের কঠিন হাল। মা-বোনদের মুখে ভাত দিতে চলছে তার জীবনসংগ্রাম। এমন সংগ্রামে হয়তো বেঁচে যাবে প্রাণ; কিন্তু বড় কিছু হওয়ার স্বপ্ন পুরণ হবে কি আর? ছোট্ট শরীরটা কি পারবে এতো ধকল সইতে? পারলে কতোদিনইবা পারবে? এক বছর আগে কাওছার যখন পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ছিল তখন তার বিভিন্ন রোগ দেখা দেয় এরপর থেকেই সংসারের হাল ধরতে হয় শিশু বারো বছরের শিশু কাওছারকে। পড়ালেখা ছেড়ে জীবিকার জন্য রিকশা চালাতে শুরু করে দেয় সে। সকালে ঘুম থেকে উঠে জীবিকার সন্ধানে ব্যাটারি চালিত রিকশা নিয়ে বের হতে হয় কাওছারকে। ঘরে ফেরা হয় তার রাতে । সারাদিন রোদে পুড়ে-বৃষ্টিতে ভিজে রিকশা টানতে হয় তাকে। এভাবেই প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ঝুঁকি নিয়ে রিকশা চালায়। তবেই ঘরে চাল-ডাল-নুনের যোগান আসে। দু’ বেলা পেটে দুটো ডাল-ভাত পড়ে। অসুস্থ মা-বোন আর নিজের ক্ষুধা মেটে তাতে। বড় ভাই সালাম মিয়া সিএনজি চালান কিন্তু বিয়ে করার পর থেকে খোঁজ-খবর রাখছেন না বাবা-মায়ের বউ নিয়ে থাকছেন অন্যস্থানে । তাই পরিবারের হাল ধরেছে শিশু কাওছার
করুণ স্বরে কাওছার বলে ‘স্বপ্ন ছিলো লেখাপড়া অনেক বড় হবো। কিন্তু আমার স্বপ্ন- স্বপ্নই রয়ে যাবে। এখন আর স্বপ্ন দেখি না। অসুস্থ মা-বোনদের নিয়ে বেঁচে থাকার চেষ্টা করি। প্রতিদিন রিকশা চালিয়ে ৪’থেকে’৫শ টাকা পাই মালিক’কে দিতে হয় ২৫০টাকা বাকিটা দিয়েই চলে সংসারের খরচ ।

 

জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক-২০১৬।বাইমহাটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় টাঙ্গাইল জেলায় শ্রেষ্ঠ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান হিসেবে নির্বাচিত

মীর আনোয়ার হোসেন টুটুল,টাঙ্গাইল জেরা প্রতিনিধি
জনপ্রতিনিধি ও সমাজ উন্নয়নে দক্ষ সমাজকর্মী হিসেবে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মীর এনায়েত হোসেন মন্টু ও দক্ষ প্রশাসক হিসেবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইসরাত সাদমীন এবং প্রাথমিক শিক্ষায় গুনগত মান উন্নয়ন ও ভাল ফলাফলের জন্য অনন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে বাইমহাটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় টাঙ্গাইল জেলায় শ্রেষ্ঠ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে।জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক-২০১৬ উপলক্ষে টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসক খান মো. নুরুল আমিন মির্জাপুর উপজেলার এই দুই গুনী ব্যক্তি এবং এক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে জেলায় শ্রেষ্ট হিসেবে ঘোষনা করেছেন।আজ মঙ্গলবার উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. খলিলুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেছেন প্রাথমিক ভাবে আজ দুই মহান ব্যক্তি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বাইমহাটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হোসনেয়ারা বেগমকে আনুষ্ঠানিক ভাবে শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে।আগামী মাসিক সমন্ময় সভায় তাদের সংবর্ধনা দেওয়া হবে।
প্রাথমিক শিক্ষা অফিস ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয় সুত্র জানায়, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয়ের উদ্যোগ্যে প্রতি বছর প্রতিটি জেলায় বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে একজন শ্রেষ্ঠ জনপ্রতিনিধি, একজন শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবং একটি শ্রেষ্ট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় বাছাই করা হয়।তারই অংশ হিসেবে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক ২০১৬ সালের জন্য টাঙ্গাইল জেলার ১২টি উপজেলার মধ্যে বাছাই পর্ব টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসকও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস প্রতিযোগিতার ব্যবস্থা করেন।গত ১৬ই আগস্ট জেলা প্রশসকের সম্মেলন কক্ষে বাছাই পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।বাছাই পর্ব অনুষ্ঠানে টাঙ্গাইল জেলার ১২টি ইউজলোর মধ্যে মির্জাপুর উপজেলার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মীর এনায়েত হোসেন মন্টু, মির্জাপুর উপজেলার নির্বাহী অফিসার ইসরাত সাদমীন ও মির্জাপুর উপজেলার বাইমহাটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় টাঙ্গাইল জেলায় শ্রেষ্ঠ ব্যক্তি ও শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে পুরষ্কার লাভ করে।বিচারক মন্ডলী হিসেবে ছিলেন টাঙ্গাইল জেরা প্রশাসক খান মো. নুরুল আমিন, অতিরিক্ত জেলা (প্রশাসক শিক্ষা) ও টাঙ্গাইল জেলার (ভারপ্রাপ্ত) জেলা শিক্ষা অফিসার এডিপি মো. মোস্তাফিজুর রহমান।
এ ব্যাপারে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মীর এনায়েত হোসেন মন্টু বলেন, আমি মির্জাপুর উপজেলার ১০ নং গোড়াই ইউনিয়নের পর পর ৫ বার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে জনগনের জন্য কাজ করেছি।গোড়াই ইউনিয়ন থেকে চেয়ারম্যান হিসেবে অব্যহতি দিয়ে গত ১০ বছর ধরে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হিসেবে নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছি।আগামীতেও আমি দেশ ও জনগনের জন্য কাজ করতে চাই।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইসরাত সাদমীন বলেন, আমি একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান।২৮ তম বিসিএসে সহকারী কমিশনার(ভুমি) হিসেবে নিয়োগপ্রাপ্ত হয়ে দেশ ও জনগনের সেবায় কাজ করে যাচ্ছি।আমি এনডিসি হিসেবে কাজ করে পদন্বনতি পেয়ে সম্প্রতি মির্জাপুর উপজেলায় ইউএনও হিসেবে যোগদান করেছি।মির্জাপুরে যোগদানের এলাকাবসির সার্বিক সহযোগিতায় মির্জাপুরকে একটি আদর্শ ও মডেল উপজেলা হিসেবে গড়ে তোলার জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছি।
বাইমহাটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হোসনেয়ারা বেগম বলেন, প্রাথমিক মিক্ষার মান উন্নয়ন ও গনগত পরিবর্তনের জন্য এলাকাবাসি, উপজেলা পরিষদ ও উপজেলা প্রশাসন এবং স্থানীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা একাব্বর হোসেনের সার্বিক সহযোগিতায় বাইমহাটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়টিকে একটি আদশ্য ও অনন্য বিদ্যাপিঠ হিসেবে গড়ে তুলেছি।সমাপনী পরীক্ষায় শতভাগ গোল্ডেন প্লাস ও বৃত্তি লাভসহ সাংস্কৃতিক অংগনে এই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মেধার স্বাক্ষর রেখে চলেছে।
উপজেলা প্রাথমকি শিক্ষা অপিসার মো,.. খলিলুর রহমান বলেন প্রাথমিক শিক্ষা পদক-২০১৭ মির্জাপুর উপজেলার মহান দুই ব্যক্তি ও এক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জেলায় শ্রেষ্ঠ হওয়ায় মির্জাপুরবাসী গর্বিত।আগামী ১২ই সেপ্টেম্বর ঢাকা বিভাগের বিভাগীয় কমিশনার মহোদয়ের কার্যালয়ের তাদের ডাকা হয়েছে।

রিলিফ নিয়ে দুর্নীতি করলে ছাড় দেয়া হবে না —ত্রাণ মন্ত্রী


শরীয়তপুর প্রতিনিধি:
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেছেন, রিলিফ নিয়ে কেউ দুর্নীতি করলে ছাড় দেয়া হবে না। দুর্যোগ আসবে দুর্যোগ চলে যাবে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলার মানুষের পাশে আছেন। শেখ হাসিনা থাকতে বাংলাদেশের মানুষ কেউ না খেয়ে মরবে না। সোমবার শরীয়তপুরের জাজিরা ও নড়িয়ায় জেলা প্রশাসনের আয়োজনে পদ্মা নদীর ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্ত এবং পানিবন্দী দুঃস্থ পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। মন্ত্রী আরও বলেন, গত চার মাসে বাংলাদেশে বন্যা, পাহাড় ধস, নদী ভাঙনসহ বহু দুর্যোগ এসেছে। এই দুর্যোগে যারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তাদেরকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ত্রাণ, চিকিৎসার জন্য ওষুধ, বিশুদ্ধ খাবার পানি, বাসস্থানসহ যা প্রয়োজনীয় সব কিছু দিয়েছেন। আমাদের খাদ্য, ত্রাণের অভাব নেই। যার যা সহযোগিতা দরকার তা আমরা দেব। যাদের খাবার দরকার খাবার দেব, যাদের ঘর দরকার ঘর দেব। ত্রাণ বিতরণকালে আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম বলেন, শেখ হাসিনা সকল দূর্যোগ-দূর্বিপাকে এদেশের মানুষের পাশে ছিলেন, আছে, আগামীতেও থাকবেন। তিনি এদেশের মানুষের উন্নয়নে কাজ করেন। শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলে এদেশের মানুষ ভাল থাকবে, বাংলাদেশ আরও এগিয়ে যাবে। শরীয়তপুরের জেলা প্রশাসক (ভারপ্রাপ্ত) মাহবুবা আক্তারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক এমপি, আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম, শওকত আলী এমপি, নাভানা আক্তার এমপি, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব শাহ্ কামাল, পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ মামুন, জাজিরা উপজেলা চেয়ারম্যান মোবারক আলী সিকদার, নড়িয়া উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম ইসমাইল হক, সাবেক ছাত্রনেতা জহির সিকদার, জাবি ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মেহেদী জামিল প্রমূখ।- প্রেসবিজ্ঞপ্তি।

পীরগঞ্জে বন্যার্তদের মাঝে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি সরকার বন্যার্তদের পাশে আছে

মামুনুররশিদ মেরাজুল, পীরগঞ্জ (রংপুর) থেকে ঃ
প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যকে উদ্ধৃত করে জাতীয় সংসদের স্পিকার ও রংপুর-৬ পীরগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, সরকার বন্যার্তদের পাশে আছে। কোন লোকই খাদ্যের অভাবে কষ্ট পাবে না। বন্যার ব্যাপারে আমরা প্রয়োজনীয় সব রকমের ব্যবস্থা নিয়েছি। বন্যার শুরুতেই পীরগঞ্জে ৫০ মে. টন চাল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। আজও ১’শ মে. টন চাল দেয়া হচ্ছে। গতকাল সোমবার দুপুরে উপজেলার কাবিলপুর ইউনিয়নের লালদীঘির মেলা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে হাজারো বন্যার্তের মাঝে ত্রাণ ও কৃষি উপকরণ বিতরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি ওই কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, বন্যায় রাস্তা-ঘাট, প্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। আমরা সেগুলো সংস্কারে উদ্যোগ নিয়েছি। পীরগঞ্জের কাবিলপুর, চতরা, চৈত্রকোল ও টুকুরিয়া ইউনিয়নে বন্যায় বেশী ক্ষতি হয়েছে। ওই অনুষ্ঠানে কাবিলপুর ইউপি আ’লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম বকুলের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, জেলা প্রশাসক ওয়াহিদুজব্জামান, জেলা পরিষদের প্রশাসক সাফিয়া খানম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোনায়েম সরকার মানু, উপজেলা আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এ্যাড. আজিজুর রহমান রাঙ্গা, ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম প্রমুখ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি জানান, কাবিলপুরে বন্যায় ৩’শ ২৫ জনকে ঘর মেরামতের জন্য ৫ লাখ টাকা, ২ হাজার বন্যার্তের মাঝে ২০ কেজি করে চাল দেয়া হলো। এরপর তিনি চতরা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ত্রান বিতরন করেন। এতে গোলাম হোসেনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, চতরা ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হক শাহীন, ওই ইউপি আ’লীগের সম্পাদক রেজওয়ানুল হক ননতু।
এর আগে সকাল ১০ টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে উপজেলা সেলাই প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ও উপজেলা পরিষদ অডিটরিয়াম হলে বাল্য বিবাহ প্রতিরোধের মাধ্যমে মাতৃ মৃত্যু হ্রাসকরণ বিষয়ক কর্মশালার উদ্বোধন করেন। ওই অনুষ্ঠানে জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব ড. মু. আব্দুর রউফ হাওলাদারের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, ইউএনএফপিএ’র কান্ট্রি ডিরেক্টর ইউরোকাতো, সাবেক স্বাস্থ্য মন্ত্রী আ.ফ.ম রুহুল হক এমপি, ঢাকা-৪ আসনের এমপি সানজিদা খানম, সংরক্ষিত আসনের এমপি সেলিনা বেগম, সংসদ সচিবালয়ের অতিরিক্ত সচিব আ.ই.ম গোলাম কিবরিয়া, পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, পীরগঞ্জ পৌর মেয়র তাজিমুল ইসলাম শামীম, জেলা আ’লীগ নেতা একেএম ছায়াদত হোসেন বকুল, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান রনি প্রমুখ। গতকাল তিনি বিমানযোগে সৈয়দপুরে আসেন এবং বিমানযোগেই ঢাকা ফিরেন।

নোয়াখালীতে পুলিশের সাথে বন্ধুকযুদ্ধে নিহত আলমের পক্ষে অপপ্রচারের বিরুদ্ধে মানববন্ধন

নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ
নোয়াখালীর আলাইয়ারপুর ইউনিয়ন যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক মোঃ আলম পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হওয়ার ঘঠনায় আওয়ামীলীগের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী।আজ দুপুর ১টায় আলাইয়ারপুর ইউনিয়নের যুগিতোলা বাজারে ঘন্টাব্যাপি এই মানবন্ধনটি অনুষ্ঠিত হয়।মানববন্ধনে এলাকার সচেতন নাগরিক, স্থানীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান, ব্যবসায়ী, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সহ বিভিন্নস্তরের মানুষ উপস্থিত ছিলেন।
মানববন্ধনে স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা মাছ রহিম বলেন, আলম কখনো বিএনপি নেতা ছিলো না, সে একজন ডাকাত ছিলো। বিএনপির কিছু নেতা তাকে দিয়ে আওয়ামীলীগকে দমাই রাখতো। তাই তাকে এখন যুবদলের নেতা বলে দাবী করা হচ্ছে। তার ভয়ে এলাকার কেউ মামলা করতে সাহস পায় নি। প্রশাসনের হাতে তার মৃত্যুতে আমরা এলাকাবাসী খুশি। তবে কিছু মানুষ সংবাদ সম্মেলন করে আলমকে ভালো সাজানোর চেষ্টা করতেছে। আমরা এই অপপ্রচারের বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করছি।
উল্লেখ্যঃ গত ২৪শে আগস্ট গভীর রাতে আলাইয়াপুর ইউনিয়নে পুলিশের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে মোঃ আলম নিহত হয়।

বিমানবন্দরে প্রায় ৩ কেটি স্বর্ন আটক

এস,এম মনির হোসেন জীবন : ঢাকা হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ফ্লাই দুবাই এয়ারলাইন্স বিমানের ২৪/এফ নম্বরের সিট কাভার এর পেছন থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় ২ কেজি ৫৫২ গ্রাম ওজনের ২২টি সোনার বার জব্দ করেছে বিমানবন্দর কাস্টমস হাউজের প্রিভেনটিভ টিম কর্তৃপক্ষ। প্রতিটি বারের ওজন ১০ তোলা করে। জব্দ করা সোনার বার গুলো হলুদ রংয়ের স্কচটেপ দিয়ে মোড়ানো ছিল। উদ্বার হওয়া সোনার বাজার মূল্য প্রায় ১ কোটি ৩৮ লাখ টাকা।
আজ সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বিমানবন্দরের ফ্লাই দুবাই এয়ারলাইন্স এমজেড-৫৮৩ নম্বর বিমানের ২৪/এফ নম্বরের সিট থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় ২২টি সোনার বার উদ্বার করা হয়।বিমানবন্দর কাস্টমস হাউজের প্রিভেনটিভ টিমের সহকারী কমিশনার মো: সাইদুল ইসলাম আজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
বিমানবন্দর কাস্টমস হাউজের প্রিভেনটিভ টিমের সহকারী কমিশনার মো: সাইদুল ইসলাম আজ জানান, আজ সোমবার বেলা ১১টা ৫০ মিনিটের দিকে ফ্লাই দুবাই এয়ারওয়েজের (এমজেড-৫৮৩) নম্বরের বিমানটি ঢাকা হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌছায়। বিমানবন্দর কাস্টমস হাউজের প্রিভেনটিভ টিমের সদস্যরা গোপনে খবর পায় যে,উক্ত বিমানে করে সোনার একটি চালান ঢাকায় এসেছে। তখন কাস্টমস হাউজের প্রিভেটিভ টিমের সদস্যরা সোনার চালানটি ধরার জন্য বিমানবন্দরের গুরুত্বপূর্ন স্থান গুলোতে অবস্থান নেয়। ওই বিমানে সকল যাত্রীরা বিমান থেকে একে একে নেমে যাওয়ার পর পুরো বিমানটিতে কাস্টমস হাউজের প্রিভেনটিভ টিমের সদস্যরা সোনার চালানটি ধরার জন্য দফায় দফায় ঝটিকা অভিযান চালায়। অভিযানের এক পর্যায়ে তারা ফ্লাই দুবাই এয়ারলাইন্স বিমানের ২৪/এফ নম্বরের সিটের পেছন থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় হলুদ রংয়ের স্কচটেপ দিয়ে মোড়ানো ২ কেজি ৫৫২ গ্রাম ওজনের ২২টি সোনার বার পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্বার করেন।
সহকারী কমিশনার সাইদুল ইসলাম আজ আর ও জানান, ফ্লাই দুবাই এয়ারলাইন্স বিমানের ভেতর থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় ২ কেজি ২ কেজি ৫৫২ গ্রাম সোনা উদ্বার করা হয়। যার মধ্যে ১০ তোলা ওজনের মোট ২২টি বার রয়েছে। যার মূল্য প্রায় ১ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। জব্দ কারা সোনার বার গুলো কাস্টম এর নিকট জমা আছে। এবিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন আছে।

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

মুহাম্মদ আতিকুর রহমান (আতিক), গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি ঃ
গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির অর্ধ-বার্ষিকী সভা ২৭ আগস্ট রবিবার সকালে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র অধ্যাপক এম.এ মান্নান।
অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কে.এম. রাহাতুল ইসলাম, সচিব মোঃ আসলাম হোসেন, ৫৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ সেলিম হোসেন, ১০,১১ ও ১২ নং ওয়ার্ড মহিলা কাউন্সিলর শাহানাজ পারভীন প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন ওয়ার্ডের কাউন্সিলরসহ গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির অন্যান্য সদস্যরা।
সভায় কেয়ার বাংলাদেশের সিনিয়র টেকনিক্যাল ম্যানেজার-রেজিলিয়েন্স বিশ্বজিৎ কুমার রায় মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টরের মাদ্যমে গাজীপুরে বাস্তবায়নাধীন “বিল্ডিং রেজিলিয়েন্স অব দ্যা আরবান পুওর” প্রকল্পের কার্যক্রম তুলে ধরে বলেন, বিগত প্রায় আড়াই বছর ধরে কেয়ার বাংলাদেশ ও এর সহযোগী সংস্থা ভার্ক গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন এলাকায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা নিয়ে কাজ করছে।
মেয়র অধ্যাপক এম.এ মান্নান “বিল্ডিং রেজিলিয়েন্স অব দ্যা আরবান পুওর” প্রকল্পের আওতাধীন দুটি ওয়ার্ডের কাউন্সিলরদের কাছে প্রকল্পের মাধ্যমে এলাকার অবস্থার খোঁজ খবর নেন।
সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কে.এম. রাহাতুল ইসলাম বলেন, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ৫৭টা ওয়ার্ডে ওয়ার্ড দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটি গঠিত হয়েছে। সেগুলোকে শক্তিশালী করতে হবে এবং তাদের দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস পরিকল্পনা প্রণয়ন করতে হবে।
কাউন্সিলর মোঃ সেলিম হোসেন ও মহিলা কাউন্সিলর শাহানাজ পারভীন তাদের এলাকার কথা তুলে ধরেন এবং “বিল্ডিং রেজিলিয়েন্স অব দ্যা আরবান পুওর” প্রকল্পের পক্ষ হতে প্রাপ্ত সহযোগিতার কথা স্বীকার করেন।

চন্ডিপুর বাজার ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন হরিণাকুন্ডুকে ৪-০ গোলে হারিয়ে কোটচাঁদপুরের শুভ সুচনা

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহ সদর উপজেলার চন্ডিপুর বাজার ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন করা হয়েছে। শুক্রবার বিকালে গান্না ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ নাছির উদ্দীন মালিথা প্রধান অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি সিনিয়র সাংবাদিক আসিফ ইকবাল কাজল কবুতর উড়িয়ে খেলার উদ্বোধনী ঘোষনা করেন। এ সময় আয়োজকদের পক্ষে তোফাজ্জেল হোসেন বিশ্বাস, কামরুজ্জামান মীর, আব্দুল মালেক, রায়হান উদ্দীন মালিথা, সারোয়ার হোসেন, মুন্না, জাহাঙ্গীর হোসেন জোয়ারদারসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। চন্ডিপুর বাজার ফ্রেন্ডস স্পোটিং ক্লাবের সৌজন্যে ঢাকাস্থ ঝিনাইদহ ট্রান্সপোর্ট এর সত্বাধীকারী জাহিদুল ইসলাম এই টুর্ণামেন্টের আয়োজন করেন। প্রতিযোগিতায় ঝিনাইদহ জেলার ৮টি দল অংশ গ্রহন করছেন। শুক্রবার উদ্বোধনী দিনে হরিণাকুন্ডু রাজ ডেন্টাল কেয়ার যুব সংঘ একাদশ ও কোটচাঁদপুরের খেলোয়াড় কল্যান সমিতি একাদশ একেঅপরের মোকাবিলা করে। খেলায় কোটচাঁদপুর খেলোয়াড় কল্যান সমিতি একাদশ একচেটিয়া প্রভাব বিস্তার করে হরিণাকুন্ডুকে ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত করে। কোটচাঁদপুরের পক্ষে সাব্বির ২টি, সুমন ১টি ও তাইবু ১টি করে গোল করে দলকে বিপুল গোলের ব্যবধানে জয়ী করতে সমর্থ হন। কোটচাঁদপুরের সাব্বির শ্রেষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে বিবেচিত হন।

সাভারে বিসিক শিল্প নগরী ট্যানারিতে ১০ দফা দাবি আদায়ের লক্ষে দুই ঘন্টা কাজ বন্ধ রেখে বিক্ষোভ মিছিল

 

মোঃ গোলাম মোস্তফা,(সাভার)
সাভারে বিসিক শিল্প নগরী ট্যানারিতে ১০ দফা দাবি আদায়ের লক্ষে দুই ঘন্টা কাজ বন্ধ রেখে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে শ্রমিকরা।বৃহস্পতিবার সকাল ১০ থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত সাভারের হেমায়েতপুরের হরিণধরা এলাকায় ট্যানারিতে ট্যানারি ওয়ার্কাস ইউনিয়নের ব্যাপারে এ বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ করে শ্রমিকরা। বিক্ষোভ মিছিলটি বে ট্যানারির সামনে থেকে শুরু হয়ে আমতলা গিয়ে শেষ হয়। বিক্ষোভ মিছিলে এসময় চালু হওয়া ৫৫ টি ট্যানারির কয়েক হাজার শ্রমিক অংশ গ্রহন করেন। এছাড়া ট্যানারি শ্রমিকদের পাশাপাশি সাভারের বিভিন্ন গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের শ্রমিকরাও অংশ গ্রহন করেন। বিক্ষোভ মিছিল শেষে এক সমাবেশে ট্যানারি ওয়ার্কার্স ইউনিয়নের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ বলেন আগামী কোরবানী ঈদের আগে আমাদের ১০ দফা দাবি মানতে হবে,দাবি না মানলে ঈদের পরে কঠোর কর্মসুচী দেওয়া হবে। এসময় তিনি শ্রমিকদের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি না খেলতে ট্যানারি মালিকদের আহবান জানান। এসময় তিনি আরও বলেন চামড়া শিল্প নগরীতে শ্রমিকদের আবাসন,হাসপাতাল,স্কুল ক্যান্টিন ও ইউনিয়ন (সিবিও) কার্যালয় জরুরী সকল সুযোগ সুবিধা নিশিচত করা এবং শ্রমিকদের অন্তবর্তী ভাতা প্রদান,চামড়া শিল্প নগরীর সকল রাস্তা ও ড্রেনেজ ব্যবস্থা উন্নয়ন ও রাস্তায় পর্যাপ্ত লাইটের ব্যবস্থা করতে হবে । অবিলম্বে তিনি দাবি গুলো ট্যানারি মালিকদের বাস্তবায়ন করার দাবি জানান।
বিক্ষোভ মিছিলে এসময় ট্যানারি ওয়ার্কাস ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেকসহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন ছিলো।

ঝিনাইদহে শিক্ষকের স্কেলের আঘাতে চোঁখ হারালো শিক্ষার্থী

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার দহকোলা গ্রামের মনতেজার রহমান মিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মুরাদ হোসেনের স্কেলের আঘাতে এক চোখ হারিয়েছে ওই বিদ্যালয়ের ৬ষ্ট শ্রেণীর ছাত্রী মারিয়াতুছ ফোয়ার। ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শিক্ষার্থী ফোয়ারার বাবা শরিফুল ইসলাম অভিযোগ করেন, গত ১২ আগস্ট সকাল ১০ টার দিকে ফোয়ারার স্কেলে থাকা কালি ওই শিক্ষকের হাতে লেগে যায়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওই স্কেল দিয়ে ফোয়ারার চোখে আঘাত করেন। চোখে রক্তক্ষরণ হলে সেখান থেকে তাকে অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার চোখের অবস্থা খারাপ হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা বলেন, তার একটি চোখ নষ্ট হয়ে গেছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য ভারতে পাঠাতে হবে। বর্তমানে ওই শিক্ষার্থী নিজ বাড়িতে আছে। আর্থিক অবস্থা খারাপ হওয়ায় তাকে ভারতে নিয়ে যেতে পারছেন না।এ ঘটনায় মঙ্গলবার ফোয়ারার বাবা বাদি হয়ে শৈলকুপা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।শৈলকুপা থানার ওসি আলমগীর হোসেন বলেন, থানায় সংক্রান্ত মামলা হওয়ার পর আজ অভিযুক্ত শিক্ষককে পুলিশ গ্রেফতার করা হয়েছে


সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: এ্যাডভোকেট শেখ মোঃ আব্দুল্লাহ
সম্পাদক-প্রকাশক : শেখ মোঃ তৈয়াবুর রহমান॥

যুগ্ম সম্পাদক: এস এম শাহিদুল আলম॥ সহযোগী সম্পাদক: শেখ মোঃ আরিফ আল আরাফাত
সহ-সম্পাদক: (প্রশাসন) হাজী হাবিবুর রহমান শাহেদ: সহ সম্পাদক: আজমাল মাহমুদ
সম্পাদক কর্তৃক বাড়ী বাড়ী নং- ৫৩/২, ৪র্থ তলা, রাজ-নারায়ন-ধর রোড, কিল্লার মোড় বাজার, লালবাগ, ঢাকা-১২১১
ফোন: ০১৯১৮-২০১৬২৬, ফোন: ০১৭১৫-৯৩৩১৬৮
ই-মেইল- notunvor.news@gmail.com
Designed By Hostlightbd.com
| Cyberboss.org