শুক্রবার রাত ১১টা ৫৫ মিনিটে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের এসকিউ ৪৪৭ ফ্লাইটের টিকিট কেটেছেন প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা। স্ত্রীকে নিয়ে শুক্রবার রাতের ফ্লাইটে তার বিদেশ যাওয়ার কথা রয়েছে। ইতোমধ্যে ১৩ অক্টোবর থেকে ১০ নভেম্বর পর্যন্ত বিদেশে অবস্থানের বিষয়টি রাষ্ট্রপতিকে চিঠি দিয়ে অবহিত করেন প্রধান বিচারপতি।

বিমানবন্দর সূত্রে জানায়, রাত ১১টা ৫৫ মিনিটে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের এসকিউ ৪৪৭ ফ্লাইটটি ঢাকা থেকে সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে ছেড়ে যাবে। সেই ফ্লাইটের টিকিট কেটেছেন প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা।

এদিকে, সন্ধ্যা ৬টার দিকে সুপ্রিম কোর্টের স্পেশাল অফিসার ইসমাইল হোসেন দেখা করতে প্রধান বিচারপতির বাসভবনে প্রবেশ করেন। এর পরে সন্ধ্যা ৬টা ১৭ মিনিটে ওই বাসায় প্রবেশ করেন প্রধান বিচারপতির ব্যক্তিগত সহকারী আনিসুর রহমান।
বৃহস্পতিবার (১২ অক্টোবর) আইন মন্ত্রণালয় প্রধান বিচারপতির ছুটি সংক্রান্ত একটি আদেশ জারি করে। আইন সচিব আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হক স্বাক্ষরিত এই আদেশে বলা হয়, প্রধান বিচারপতির আবেদনে এর আগে ৩ অক্টোবর থেকে ১ নভেম্বর পর্যন্ত ৩০ দিনের ছুটি মঞ্জুর করেছিলেন রাষ্ট্রপতি। কিন্তু বিচারপতি সিনহা যেহেতু আরও বেশি দিন বিদেশে থাকবেন, সেহেতু রাষ্ট্রপতি নতুন আদেশ দিয়েছেন।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের আলোচনা করতে আগামী ২৩ অক্টোবর মিয়ানমারে যাচ্ছেন। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দুই সচিব, পুলিশ প্রধান, বিজিবি প্রধান, কোস্টগার্ড প্রধান, মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রধান, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (রাজনৈতিক) এই সফরে মন্ত্রীর সঙ্গে থাকছেন বলে জানা গেছে।সফর শেষে ২৫ অক্টোবর মন্ত্রীর দেশে ফেরার কথা রয়েছে।  আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে নিজ দপ্তরে মন্ত্রী জানান, রোহিঙ্গা সঙ্কট ছাড়াও দ্বিপক্ষীয় চারটি পূর্বনির্ধারিত বিষয়ে মিয়ানামার কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা হবে। মন্ত্রী বলেন, আমাদের মূল এজেন্ডা হবে বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো এবং এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে না ঘটে- সে বিষয়ে আলোচনা করা।

নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁয় অ্যাম্পুল নেশা জাতীয় ১৮ পিছ ইনজেকশনসহ মোঃ এমদাদুল হক দুলু (৪৮) নামে এক ভেটেরিনারী ওষুধ ব্যবসায়ীকে আটক করেছে জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সদস্যরা। বুধবার দুপুরে শহরের ওষুধ পট্টী তার নিজ দোকান রোগ মুক্তি হল থেকে তাকে আটক করা হয়। এমদাদুল হক নওগাঁ সদর উপজেলার রজাগপুর মধ্য পাড়া গ্রামের মৃত মজাম্মেল হকের ছেলে। ডিবির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাকিরুল ইসলাম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি এমদাদুল হক তার ভেটেরিনারী ওষুধের দোকানে এই নেশা জাতীয় ইনজেকশন বিক্রয় করে। তাই অভিযান চালিয়ে তাকে দোকান থেকে আটক করি । এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে সদর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান ওসি।

 


এস,এম মনির হোসেন জীবন : আগামী ছয় মাসের মধ্যে মেট্রোরেল দৃশ্যমান হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।
তিনি আরও বলেন,পদ্মা হয়েছে সেতু। আমার প্রজেক্ট কোনটা বন্ধ নেই। ‘মেট্রোরেলের কাজ পুরোদমে চলছে। মেট্রোরেল প্রকল্পের সকল ধরনের উন্নয়ন কাজ বেশ দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে। আশা করি, আগামী ছয় মাসের মধ্যে এ প্রকল্প দৃশ্যমান হবে।
আজ বুধবার দুপুরে রাজধানীর উত্তরার দিয়াবাড়িতে তৃতীয় প্রকল্পে মেট্রোরেলের ডিপো নির্মান কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সাথে এক প্রেসব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের রাজনৈতিক প্রসঙ্গে বলেন, জামায়াতের আগামীকালের হরতালে সহিংস কোন সুযোগ নেই। উদ্বব পরিস্থিতি রূপ নিলে তখন তার জবাব কি হবে তখন তার কড়া উপযুক্ত জবাব দেয়া হবে বলে তিনি হুশিয়ারী উচচারণ করেন।
তিনি আরও বলেন, ৫ জানুয়ারি নির্বাচনে বিএনপি-জামায়াতের অবরোধের সময় তারা মানুষকে পুড়িয়ে মারা হয়েছে। গাড়ি চালক,ছাত্র,পুলিশ সহ অগনিত মানুষকে তারা হত্যা করেছে। এখন বিএনপি জনগন থেকে বিচিছন্ন। কোন রেজাল্ট নেই। সহিংসতা যারা করবে তারা জনগন থেকে বিচিছন্ন হবে।
আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ওবায়দুল কাদের দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, জামায়াতের আগামীকালের হরতালে দলীয় নেতাকর্মীদের মাঠে থাকার দরকার নেই। সহিংসতা করলে তার উপযুক্ত জবাব নেয়া হবে।
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে উদ্দেশ্য করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, উনারে কাঁদতে বলেন। হতাশ হয়ে চোখের জল ফেলছেন। তার অবস্থায় পড়লে আমারও কি হতো। সেটা আমাদের ভাগ্যে হয়নি।
তিনি আরও বলেন, বিএনপি দলীয় নেতাকর্মীদের চাঙ্গা করার জন্য মির্জা ফকরুল ইসলাম আলমগীর একেক সময় একেক কথা বলছেন। তার এখন হায়হতাশ ছাড়া আর কোন কাজ নেই।
প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহা প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদেরকে বলেন, উনিতো মেরুদন্ডহীন না। জোর করে বিদেশ পাঠানো হলে উনি নিজেই বলতেন। প্রধান বিচারপতির ছুটি নিয়ে বিএনপির সমালোচনার জবাবে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘তিনি অসুস্থ, ছুটি নিতেই পারেন। আর তাকে জোর করে বিদেশ পাঠানো হলে উনি তো সেটা বলতেন। উনি তো মেরুদন্ডহীন না।’
গুলশান হলিআটিজানের জঙ্গী হামলার কারণে মেট্রোরেলের কাজ ৬ মাস পিছিয়েছে। অনেকটা অনিশ্চিয়তায় পড়েছিল। জাইকার ফ্রান্ড বন্ধ হয়নি। এখন সে উন্নয়ন কাজ পুরোদমে চলছে। বর্তমান সরকার দ্রুতগতিতে এই প্রকল্প শেষ করার জন্য কাজ করছেন।
মেট্রোরেল প্রকল্প এক ও প্রকল্প দুই সম্পন্ন হয়েছে। বাকী কাজ ও বেশ দ্রুতগতিতে করা হবে। তার মধ্যে ৩২ কিলোমিটার আন্ডারগ্রাউন্ড থাকবে। ইতি মধ্যে টেন্ডারের আটটি কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এখন শুধু গ্রাউন্ড লেভেলের কাজ হবে এবং সেটি ইতি মধ্যে শুরু হয়ে গেছে। কোন ফ্রান্ডিনের ঘাটতি নেই।
উত্তরার দিয়াবাড়িতে তৃতীয় প্রকল্পে মেট্রোরেলের ডিপো নির্মান কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন কালে মেট্রোরেল প্রকল্পের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।
উত্তরা মেট্রোরেল নির্মান প্রকল্প সাইড অফিস সুত্রে জানা যায়, ঢাকা ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট ডেভোলপমেন্ট প্রজেক্ট (ডিএমআরটিডিপি) মেট্রোরেল নির্মান প্রকল্পের নাম করণ করা হয়েছে। মোট আটটি প্যাকেজের মাধ্যমে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হচেছ। এতে প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়েছে ২১৯৮৫.০৭. কোটি টাকা। তার মধ্যে জিওবি-৫৩৯০.৪৮ ও প্রকল্প সাহার্য বিদেশী সংস্থা (জাইকা)-১৬৫৯৪.৫৯ কোটি টাকা।
প্রকল্পের মেয়াদ ধরা হয়েছে জুলাই ২০১২ থেকে জুন ২০২৪ পর্যন্ত। তার মধ্যে দৈর্ঘ্য ২০.১ কিলোমিটার হবে (এলিভেটেড)। রোলিং স্টক থাকবে ২৪ সেট,যাত্রী পরিবহন ক্ষমতা থাকবে ৬০ হাজার (প্রতিঘন্টা-উভয় দিকে।
এছাড়া উত্তরা তৃতীয় পর্ব আবাসিক এলাকায় ডিপো নির্মানের জন্য প্রয়োজনীয় ২৩.৮৪ হেক্টর (৫৮.৯১) একর জমি রাজউক থেকে বরাদ্ব পাওয়া যায়। মোট স্টেশনের সংখ্যা ১৬টি। মোট ৮টি প্যাকেজের মাধ্যমে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হচেছ। মেট্রেরেল পাইলট প্রকল্পে নয়টি পাইলিং এর মধ্যে তিনটি পাইলিং ইতি মধ্যে হয়ে গেছে। সেই সাথে উন্নয়ন কাজ বেশদ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে।
উল্লেখ্য, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৩১ অক্টোবর ২০১৩ সালে উক্ত প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট গ্রুপের (বিডিজি) ভাইস চেয়ারম্যান দিলারা মোস্তফা মানিকগঞ্জে বন্যায় দুর্দশাগ্রস্ত বিধবাদের সহায়তা করতে গতকাল মঙ্গলবার শাড়ি কাপড় দিয়েছেন। প্রতি মাসে তিনি সেখানকার ৪০০ দুস্থ বিধবাকে নিজের তহবিল থেকে ভাতা প্রদান করে থাকেন।মানিকগঞ্জের আফতাব উদ্দিন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে গতকাল বিকেলে অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিধবাদের হাতে সহায়তা তুলে দেওয়া হয়। দিলারা মোস্তফা এ স্কুলের পরিচালনা কমিটির সভাপতি। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোশারফ হোসেন, স্কুল কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট বজলুর রহমান, মো. আমজাদ হোসেনসহ স্থানীয় বিশিষ্টজনরা। শিক্ষানুরাগী দিলারা মোস্তফা উপস্থিত বিধবাদের হাতে কাপড় ও চলতি মাসের ভাতা তুলে দেন।সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে দিলারা মোস্তফা বলেন, সামর্থ্যবান সবারই দুস্থ ও গরিবদের প্রতি দায়িত্বশীল হওয়া উচিত। দায়িত্ববোধ থেকেই গরিব বিধবাদের সহায়তার চেষ্টা করছি। বড় বোন বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহানের সহধর্মিণী আফরোজা বেগম, ভাই বসুন্ধরা গ্রুপের প্রধান উপদেষ্টা মাহবুব মোর্শেদ হাসান রুনু দুস্থদের নিয়মিত সহায়তা করে থাকেন। আমরা সব ভাই-বোন মিলেই মানিকগঞ্জে সহায়তা কার্যক্রম চালিয়ে আসছি। দিলারা মোস্তফা বিধবাভাতা কার্যক্রম ভবিষ্যতে আরো প্রসারিত করার কথা জানান।দুস্থ বিধবারা জানান, দিলারা মোস্তফার সহায়তায় তাঁদের জীবনের অনেক কষ্ট লাঘব হয়েছে। কেবল মাসিক ভাতা নয়, যেকোনো দুঃসময়ে তিনি সহায়তা করে থাকেন। তাঁর উন্নতি ও মঙ্গল কামনা করেন বিধবারা। দানশীল দিলারা মোস্তফা প্রতিবন্ধীদের জন্য সংগঠন স্যুইড বাংলাদেশ মানিকগঞ্জ শাখার সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এ ছাড়া তিনি বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন।

বাংলাদেশে নবাগত ৫ লাখের বেশি রোহিঙ্গাকে মিয়ানমারে তাদের বাড়িঘরে ফেরত পাঠানো নিশ্চিত করতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সঙ্গে পাকিস্তানকে যুক্ত হওয়ার অনুরোধ জানিয়েছে বাংলাদেশ। মঙ্গলবার ইসলামাবাদে পাকিস্তানের নব নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী শাহিদ খাকান আব্বাসীর সঙ্গে দেখা করে দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার তারিক আহসান এ অনুরোধ জানান। হাই কমিশনের পক্ষ থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী প্রায় ৫ লাখের বেশি বাস্তুচ্যুত মিয়ানমার নাগরিককে আশ্রয় দেয়া এবং এ সংক্রান্ত চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় বাংলাদেশের ভূমিকার ভুয়সী প্রশংসা করেন। সেই সঙ্গে তিনি বলেন, মিয়ানমারকে অবশ্যই তার নাগরিক বিশেষ করে সংখ্যালঘুদের সুরক্ষার দায়িত্ব নিতে হবে। হাই কমিশনারের সঙ্গে বৈঠকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ঢাকা ও ইসলামাবাদের মধ্যে বিদ্যমান ভুল বোঝাবুঝি নিরসন করতে ও শক্তিশালী দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক গড়ার আহ্বান জানান। সেই সঙ্গে তিনি দুই দেশের পররাষ্ট্র সচিব পর্যায়ের বৈঠক অনুষ্ঠানের তাগিদ দেন। জবাবে বাংলাদেশের হাই কমিশনার পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রীকে বলেন, দীর্ঘ সময় থেকে ঝুলে থাকা পররাষ্ট্র সচিব পর্যায়ের বৈঠক আয়োজনে বাংলাদেশ প্রস্তুত রয়েছে।


সাগর চক্রবর্ত্তী, ফরিদপুর জেলা প্রতিনিধি ১০ অক্টোবর মঙ্গলবারঃ মা ইলিশ মাছ রক্ষায় মধুখালীর মধুমতি নদীতে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে মোবাইল কোর্টের অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর ২টায় পর্যন্ত উপজেলার মধুমতি নদীতে মা ইলিশ রক্ষার লক্ষ্যে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) মোঃ মনজুর হোসেন। মোবাইল কোর্র্ট সুত্রে জানা গেছে মা ইলিশ রক্ষা পরিচালিত মোবাইল কোর্টের অভিযানের খবর পেয়ে বাগাট ইউনিয়নের সিতারামপুর এলাকার মধুমতি নদীতে ২টি ট্রলার ও প্রায় ২হাজার মিটার জাল ফেলে মৎস্য শিকারীরা পালিয়ে যায় ।
জব্দ কৃত জাল তাতক্ষনিক ভাবে আগুনে পুরিয়ে ধ্বংস করা হয়েছে এবং ট্রলার ২টি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মতিয়ার রহমান খানের জিম্বায় রাখা হয়েছে।

 

এস এম ইদ্রিস রায়হান ঃ গত ৭ অক্টোবর ২০১৭ শনিবার ঐতিহ্যবাহী হাইদচকিয়া বহুমুখী উচ্ছ বিদ্যালয়ের বার্ষিক পুরস্কার বিতরণ সংবর্ধনা যুবরাজ- নৃপেন্দ্র স্মৃতি বৃত্তি” প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ফটিকছড়ি মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী উক্ত অনুষ্ঠানে সংবর্ধনা সংবধিত অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সরকারের মহামান্য রাস্ট্রপতির সচিব সম্পদ বড়–য়া অতিরিক্ত সচিব ও প্রকল্প পরিচালক সেকায়েপ শিক্ষাবভন ঢাকা, ড. মোঃ মাহামুদ-উল-হক চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল এন্ড কলেজ প্রফেচর ডা. এম এ কাশেম পি এইচডি চট্টগ্রাম ওয়াসা. উপ ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ গোলাম হোসেন ।
এতে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন ফটিকছড়ি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম. তৌহিদুল আলম বাবু, ফটিকছড়ি উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা আবু আহাম্মেদ ছৈয়দুল হক, এডভোকেট উত্তম কুমার মহাজন, ফটিকছড়ি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জেবুন নাহার মুক্তা, ৬নং পাইন্দং ইউপি চেয়ারম্যান এ কে এম সরোয়ার হোসেন স্বপন, ১০নং সুন্দরপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহনেওয়াজ। উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ত করেন হাইদচকিয়া বহুমুখি উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি আলহাজ্ব আফতাব উদ্দিন চৌধুরী।

মুহাম্মদ আতিকুর রহমান (আতিক), গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি ঃ
১৪ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা শরণার্থী বস্তিতে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে পালিয়ে আসা নির্যাতিত রোহিঙ্গা শিশু-নারী-পুরুষদের মাঝে ব্যক্তিগত উদ্যোগে টাকা বিতরণ করেন জনদরদী, নির্যাতিত অসহায় গরীব দুঃখী মানুষের বন্ধু, উদার মনের মানুষ, কালিয়াকৈরের কৃতি সন্তান, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবি ও গাজীপুর জজ কোর্টের এসিস্ট্যান্ট পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) এডভোকেট হাজী মোঃ আতাউর রহমান আকাশ।

টাকা বিতরণের সময় সাথে ছিলেন গাজীপুরের সাংবাদিক মুহাম্মদ আতিকুর রহমান (আতিক) ও উখিয়ার সোনার পাড়া এলাকার যুবক মোঃ মাজেদ।

এডভোকেট আকাশ রোহিঙ্গাদের সার্বিক অবস্থা সম্পর্কে বলেন, রোহিঙ্গাদের অবস্থা সত্যি দুর্বিষহ। সহ্য করার মতো না। বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম ইউনিয়নের তুমব্রু সীমান্তের জিরো পয়েন্টে পাহাড়ি এলাকায় রোহিঙ্গাদের পরিস্থিতি খুবই খারাপ। সেখানে রোহিঙ্গারা কোন সাহায্য পাচ্ছে না। অনাহারে মানবেতর জীবন যাপন করছে। দেশের প্রতিটি মানুষের উচিৎ রোহিঙ্গাদের মানবিক সাহায্যে এগিয়ে আসা।

ঐদিন বিকালে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম ইউনিয়নের তুমব্রু সীমান্তের চৌকিতে কর্মরত বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সোহেল বাংলাদেশ-মিয়ানমারের কাটাতারের সীমানা দেখিয়ে বলেন, ওপারে রাখাইন রাজ্য। ঐ দেখেন রাখাইনে এখনও বাড়িঘরে আগুন জ্বলছে। এই নদী হচ্ছে নাফ নদী। এই নদী পার হয়ে হাজার হাজার মানুষ বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। এখনও মানুষ প্রবেশ করছে। তবে তাদের মধ্যে বেশিরভাগ শিশু, বয়স্ক নারী-পুরুষ। যুবক-যুবতী নাই।

সাগর চক্রবত্তী , ফরিদপুর জেলা প্রতিনিধি ১১ সেপ্টেম্বর সোমবারঃ মধুখালী প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারন সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা বিশিষ্ট কলামিষ্ট ও সাংবাদিক আকরাম খান জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মেডিসিন বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডাঃ রাধেশ্যাম সাহার অধিনে চিকিৎসাধীন আছেন।
রোববার বিকেলে মধুখালী প্রেসক্লাবের সভাপতি কাজল বসুর নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অসুস্থ মধুখালী প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারন সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা বিশিষ্ট কলামিষ্ট সাংবাদিক আকরাম খানকে দেখতে যান। প্রতিনিধি দল কিছুসময় তাঁর শয্যা পাশে অবস্থান করেন এবং চিকিৎসার খোজ খবর নেন।
প্রতিনিধি দলে উপস্থিত ছিলেন মধুখালী প্রেসক্লাবের সহসভাপতি সৈয়দ এটিএম মাসউদ, নির্বাহী সদস্য মোঃ নজরুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক শাহজাহান হেলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম আবুল বাশার, সদস্য সাগর চক্রবর্ত্তী, মোঃ মেহেদী হোসেন পলাশ, গোলাম মাহাবুব হোসেন, সামিয়া আফরিন স্বপ্নাসহ প্রমুখ।