Category: ক্রাইম রিপোর্ট

আলোচিত বেলাল হত্যা মামলা ১৪লক্ষ টাকার বিনিময়ে রফাদফা শ্রমিকদের মধ্যে ক্ষোভ

ছনি চৌধুরী,হবিগঞ্জ প্রতিনিধি ॥॥
নবীগঞ্জ পৌর এলাকার নোয়াপাড়া গ্রামের সিএনজি চালক বেলালকে ১৫ সনের এপ্রিল মাসে একদল সন্ত্রাসী শেরপুর রোডস্থ সোনারখনি মা হোটেলের সামনে প্রকাশ্য দিবালোকে খুন করে। বেলাল খুন হওয়ার দুইদিন অতিবাহিত হওয়ার পর বেলালের পিতা ফারুক মিয়া ৪ জনকে প্রধান আসামী করে নবীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। বেলাল হত্যা মামলার আসামীরা কেউ ছয় মাস, কেউ তিন মাস কারাভোগ করে জামিনে আসার পর নানান প্রলোভন দেখিয়ে মামলা আপোষ করার জন্য ১৪ লক্ষ টাকার বিনিময়ে পাষন্ড পিতার কাছ থেকে হত্যা মামলা কিনে নেন। এ নিয়ে সিএনজি চালক শ্রমিকদের মধ্যে চাপা ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে। সরেজমিনে তথ্য সংগ্রহকালে সিএনজি চালকদের সাথে আলাপ করে জানা যায়, নবীগঞ্জ-আইনগাঁও সড়কের সিএনজি স্ট্যান্ড দখল বেদখল কে কেন্দ্র করে একাদিকবার দু’পক্ষের লোকের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এরই জের ধরে একদল সন্ত্রাসী সিএনজি চালক বেলালকে খুন করে। বেলাল খুন হওয়ার এক সপ্তাহ আগে বিয়ে করে নববধূ ঘরে নিয়ে আসে। বিয়ের মেহেদী শুকানোর আগেই প্রকাশ্য দিবালোকে খুন হয় বেলাল। এসময় তার নববধূ ও গর্ভধারনী মায়ের আত্ম চিৎকার মা তার ছেলে হারানো বেদনা, নববধূ তার স্বামী হারা বুক পাটা কান্না শ্রমিকদের আহাজারি এলাকার বাতাস ভারি হয়ে যায় নিরব হয় চর্তুরদিক। বছরখানেক যেতে না যেতেই পরিস্থিতির শিকার হয়ে টাকার কাছে বিক্রি হয় বেলালের পিতা ফারুক। ছেলের খুনিদের কাছে বিক্রি করে দেয় হত্যা মামলা। শ্রমিকরা আরও জানান, টাকার কাছে হত্যা মামলা বিক্রি করায় আমরা বিচিলিত হই। এভাবে প্রকাশ্য দিবালোকে খুন করে পার হয়ে গেল খুনিরা। বেলালের পিতা একবার ও কি ভাবলেন না আমার ছেলে হত্যার বিচার হোক। ধিক্কার জানাই এমন পিতার যে নাকি ছেলের নির্মম হত্যার বিচারের জায়গায় মাত্র ১৪ লক্ষ টাকার কাছে মাতা নথ করে ছেলে হত্যার বিচার গলা টিপে হত্যা করল। বেলালের পিতা ফারুক মিয়ার এমন কর্মকান্ডে আমরা আজ হতাশ।

সুন্দরগঞ্জের প্রেমিককে হত্যার অভিযোগে ভাংচুর-অগ্নিসংযোগ: প্রেমিকা উদ্ধার


আবু বক্কর সিদ্দিক, গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধিঃ
গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে প্রেম করে অবশেষে পালিয়ে বিয়ে করায় রিপন চন্দ্র দাশ (২২) নামে প্রেমিককে পরিকল্পিতভাবে হত্যার অভিযোগে প্রেমিকার স্বজনের বসতবাড়ি ও দোকানের ব্যাপক ভাংচুরসহ অগ্নিসংযোগ করেছে বিক্ষুদ্ধ জনতা। হত্যা মামলা না নেয়া পর্যন্ত লাশ গ্রহণ করছেন না নিহতের পরিবার।
বিভিন্ন সুত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে সুন্দরগঞ্জ ও বগুড়ার কাহালু থানা পুলিশের যৌথ কাহালু পৌরসভার কাইটপাড়াস্থ জনৈক গঙ্গা রাম দাশের বাড়ি থেকে প্রেমিক রিপনসহ প্রেমিকা (১৫ কে গ্রেপ্তার ও উদ্ধার করেন পুলিশ। এরপর বিকেল সাড়ে ৩ টার দিকে একটি মাইক্রোবাস যোগে কাহালু থেকে সুন্দরগঞ্জে আনার সময় গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ি উপজেলার গোপীনাথপুরের জুনদহবাজার নামক স্থানে ঢাকা-রংপুর মহা-সড়কে একটি ট্রাক চাপায় রিপন নিহত হয়ে পরে হাসপাতালে মারা গেছে বলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়। নিহত রিপন সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ধোপাডাঙ্গা ইউনিয়নের হাতিয়া গ্রামের জেলেপাড়াস্থ বাবলু চন্দ্র দাশের ছেলে। এ নিয়ে কথা হলে জনৈক রওশন আলমসহ স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন ধরে প্রতিবেশী সুরেশ চন্দ্র দাশের মেয়ে (১৫)’র সঙ্গে রিপনের প্রেম নিবেদন চলে আসছিল। টের পেয়ে মেয়েকে অন্যত্রে বিয়ে দেয়ার প্রস্তুতি নেয় সুরেশ চন্দ্র। তা বুঝতে পেয়ে গত ২৯ মে পরিবারের সবার অলক্ষ্যে প্রেমিকাসহ কাহালু পৌরশহরের কাইট পাড়াস্থ গঙ্গারাম দাশের বাড়িতে আশ্রয় নিয়ে এফিডেভিট মূলে বিয়ে তারা। এ নিয়ে সুরেশ চন্দ্র সুন্দরগঞ্জ থানায় একটি অপহরণ মামলা করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই রাজু মিয়া ব্যাপক তল্লাশী চালিয়ে কাহালু থানা পুলিশের সহায়তায় অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার পূর্বক অপহৃতাকে উদ্ধার করতে সক্ষম হন। এ ঘটনায় পর লাশের ময়না তদন্ত শেষে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তরের কথা থাকলেও সংশ্লিষ্ট থানায় হত্যা মামলা না নেয়া পর্যন্ত পরিবারবর্গ লাশ গ্রহণ করছেন না। রিপনকে বহণকারী মাইক্রোতে স্থানীয় এক ইউপি সদস্যসহ সুরেশ চন্দ্র তার স্বজনরা ওই মাইক্রোতে ছিলেন। রিপনের পরিবারের অভিযোগ মাইক্রোতেই তাকে হত্যা পর ঘটনা ভিন্ন খাতে প্রবাহের চেষ্টা চলছে। এদিকে, বিষয়টি নিয়ে বিক্ষুদ্ধ জনতা সুরেশ চন্দ্র ও তার স্বজনের বাড়ি ও দোকানের ব্যাপক ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। এব্যাপারে কাহালু থানা অফিসার ইনচার্জ-নূরে আলম সিদ্দিকী মুঠোফোণে বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুরে রিপনকে গ্রেপ্তার ও অপহৃতাকে উদ্ধার করা হয় গঙ্গারামের বাড়ি থেকে। গঙ্গারাম রিপন দাশের নিকটাত্মীয়। পলাশবাড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ নামাজে রয়েছেন জানিয়ে ডিউটি অফিসার- এএসআই রুবেল মিয়া বলেন, রিপন চন্দ্র দাশ নামে এক আসামী পালানোর চেষ্টাকালে ট্রাক চাপায় আহত হয়। তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে। লাশ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রয়েছে। তবে অপহরণ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা- এসআই রাজু মিয়াকে মোবাইল ফোণে পাওয়া যায়নি।
থানা অফিসার ইনচার্জ- মোহাম্মদ আতিয়ার রহমান বলেন, নবম শ্রেণীর ছাত্রীকে অপহরণের দায়ে রিপন চন্দ্র দাশের বিরুদ্ধে অপহৃতার বাবা সুরেশ চন্দ্র দাশ একটি মামলা করেন। এ মামলায় বৃহস্পতিবার দুপুরে কাহালু থেকে অপহৃতাকে উদ্ধারসহ অপহরণকারী রিপনকে গ্রেপ্তারের পর মাইক্রোবাসযোগে থানায় আনা হচ্ছিল। পলাশবাড়ির গোপীনাথপুর জুনদহবাজারে প্র¯্রাব করার কথা বলে রিপন চন্দ্র মাইক্রোবাস থেকে পালানোর চেষ্টা করে। এসময় একটি দ্রুত গামী ট্রাক তাকে চাপা দিলে সে গুরুতর আহত হয়। তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত ডাক্তার রিপনকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ব্যপারে পলাশবাড়ি থানায় একটি মামলা হয়েছে।
শুক্রবার উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান- আবু সোলায়মান সরকার, ধোপাডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট মোখলেছুর রহমান রাজু, থানা অফিসার ইনচার্জ- মুহাঃ আতিয়ার রহমান, পরিবারকে লাশ গ্রহণের জন্য বলেন। কিন্তু, পরিবার থেকে হত্যা মামলা না হওয়া পর্যন্ত লাশ গ্রহণ করছেন না বলে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সুত্রে জানা গেছে।

বীরগঞ্জে শ্লীলতাহানির ঘটনায় সালিশ বৈঠক সংঘর্ষে আহত-১০


এন.আই.মিলন, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি– দিনাজপুরের বীরগঞ্জে শ্লীলতাহানির ঘটনা আপোশ মিমাংশার নামে বৈঠক বসিয়ে সংঘর্ষে ১০ জন আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।
উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের কৃষ্টপুর গ্রামের আইন উদ্দিন শুক্রবার বিকালে বীরগঞ্জ হাসপাতালে চিকিৎসাধী অবস্থায় জানায়, তাদের বাড়ী সংলগ্নে বীরগঞ্জ পৌর শহরের ফিসারী মোড় এলাকার বাসিন্দা ও সাব রেজিষ্ট্রার অফিসের ষ্টাম্প ভেন্ডার প্রতিবেশী প্রাক্তন পুলিশ হাফিজ করিম এর লিচু বাগান ও পুরাতন বাড়ী রয়েছে। ২৯ মে রাতে স্কুল ছাত্রী জান্নাতুন ও পেয়ারা পার্শ্ববর্তী একটি বাড়ীতে এশারের নামাজ আদায় করে ফিরার পথে লিচু বাগান অতিক্রম করার সময় হাফিজ করিমের কেয়ারটেকার সামিউল তাদের শ্লীলতাহানি ঘটিয়ে লিচুবাগানের পাহাড়াদার মামুনের নামে মিথ্যা অবৈধ সম্পর্কের অপবাদ ও লিচু চুরি অভিযোগ দেয়। এ ঘটনায় ৩০ মে হাফিজ করিম তার পুরাতন বাড়ীতে শ্লীলতাহানির ঘটনায় আপোশ মিমাংশার নামে বৈঠক বসালে উভয় পক্ষের কথা কাটা কাটির এক পর্যায়ে কেয়ারটেকার সামিউলের মা, ভাই হাফিজ করিমের সামনে আইন উদ্দিনদেন উপর হামলা চালিয়ে বাড়ীতে ঢুকে মারপিট করে নগদ ৮৫ হাজার টাকা, দুই ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার ও মোবাইল সেট ছিনিয়ে নিয়েছে। এতে আইন উদ্দিন (২৫) সহ আলাউদ্দিন (২৮), আবু বক্কর সিদ্দিক (৫৫), সাবিনা (৪৬) মোছাঃ সেনাভান (২০), আম্বিয়া বেগম (৩৬), সামিউল (২৬), আজগড় (৫৪), আজিজুল (১৯) ও চম্পা (১৮) আহত হয়। ঘটনার সময় প্রতিপক্ষের লোকেরা বলে আহতরা দাবী করেছে।এ রিপোট লেখা পযর্ন্ত আহতরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে এবং মামলার প্রস্তুতি চলছে।

খাগড়াছড়িতে নয়ন হত্যাকারীদের গ্রেফতারে ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়েছে পার্বত্য বাঙালী ছাত্র পরিষদ


বিপ্লব তালুকদার খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি:
খাগড়াছড়ি সড়কের ৪ মাইল যৌথ খামার এলাকায় বৃহস্পতিবার সন্ত্রাসীদের হাতে নিহত নুরুল ইসলাম নয়নের হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে পার্বত্য বাঙালী ছাত্র পরিষদ(পিবিসিপি)। শুক্রবার খাগড়াছড়ি শহরের শাপলা চত্ত্বর থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে শাপলা চত্ত্বর এসে শেষ হয়। মিছিল শেষে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন পিবিসিপি’র কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব আব্দুল মজিদ। আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে নয়নের হত্যাকারীদের গ্রেফতারের আল্টিমেটাম দেয়া হয় মানববন্ধন কর্মসূচি থেকে। পাশাপাশি দ্রুত সময়ের মধ্যে অবৈধ অস্ত্রধারীদের হাতে নিহত ও ক্ষতিগ্রস্ত সাধারণ পাহাড়ী-বাঙালী পরিবারদের পুনর্বাসন এবং পাহাড় থেকে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারে হস্তক্ষেপ গ্রহণে সরকারের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।
আগামীকাল শনিবার পিবিসিপি’র আয়োজনে বেলা ১০টায় খাগড়াছড়ির প্রত্যেকটি উপজেলা বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ কর্মসূচি পালনের কথা রয়েছে। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশ, ডিবি পুলিশের পাশাপাশি খাগড়াছড়ি শহরে সেনাবাহিনী মোতায়ন করা হয়েছে।
প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার (১ জুন) বেলা ১২টার দিকে খাগড়াছড়ি-দীঘিনালা আঞ্চলিক সড়কের ৪মাইল এলাকায় রাস্তার পাশ থেকে রাঙামাটির লংগদু উপজেলার বাসিন্দা নুরুল ইসলাম নয়নের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। প্রথমে লাশের পরিচয় অজ্ঞাত থাকলেও বৃহস্পতিবার বিকেলে লাশের পরিচয় মিলে।

ঝিনাইদহে ৫ জন জঙ্গি সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ধানহাড়িয়া- চুয়াডাঙ্গা গ্রামের জঙ্গি আস্তানায় অপারেশনের পর মামলার ঘটনায় ৫ নব্য জেএমবি জঙ্গি সদস্যদের গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। গত আজ ভোরে তাদের গ্রেফতার করা হয়।গ্রেফতারকৃতরা হলো, চুয়াডাঙ্গা খালপাড়া এলাকার মৃত আহমেদ সরদারের ছেলে মোঃ আব্দুল লতিফ (৩৬), গয়েশপুর মাস্টারপাড়ার মৃত আঃ সামাদের ছেলে কাওসার জিন্নুরাইন ওরফে লাল্টু (৩৭), চুয়াডাঙ্গা মাছপাড়ার মোঃ আনোয়ার হোসেনের ছেলে সাহেব আলী (৪৮), চুয়াডাঙ্গা মসজিদপাড়ার মৃত কিনার আলী বিশ্বাসের ছেলে মোঃ শাহিনুরজামান ওরফে শাহিন (২৫), পোড়াহাটি মসজিদপাড়া মোঃ আনোয়ার হোসেনের ছেলে মোঃ আল আমিন ইসলাম(২০)।ঝিনাইদহ র‌্যাব ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার মেজর মোঃ মনির আহমেদ জানান, ঝিনাইদহ জেলার সদর থানাধীন চুয়াডাঙ্গা, পোড়াহাটি গ্রাম ও ঝিনাইদহ পাগলা কানাই এলাকায় জঙ্গি অভিযান পরিচালনা করা হয়।তিনি আরও জানান, উল্লেখিত আসামীগণ জঙ্গী সংগঠন জেএমবি সারোয়ার-তামিম গ্রুপের সদস্য। তারা দীর্ঘদিন যাবৎ জঙ্গিবাদী কার্যক্রমের সাথে সম্পৃক্ত এবং বিভিন্ন শারীরিক, সামরিক ও এক্সপ্লোসিভ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত। আসামীরা গত ০৭ মে ২০১৭ইং তারিখে ঝিনাইদহ বজ্রপুর জঙ্গি আস্তানায় নিহত আব্দুল্লাহ, তুহিন ও পলাতক আসামী লিমনের ঘনিষ্ঠ সহযোগী । গ্রেফতারকৃত আসামীদেরকে উল্লেখিত মামলায় ঝিনাইদহ বিজ্ঞ আদালতে আইনানুগ কার্যক্রমের জন্য সোপর্দ করা হয়।

নিখোঁজের ৩ দিন পর সেফটিক ট্যাংক থেকে নারীর লাশ উদ্ধার আটক-১

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহে নিখোঁজের ৩ দিন পর সেফটিক ট্যাংক থেকে আনোয়ারা বেগম নামের এক গৃহবধূও লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।আজ সকালে শহরের উপ-শহর পাড়া থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।এলাকাবাসী জানায়, গত মঙ্গলবার সকালে বাড়ী থেকে বের হয় আনোয়ারা বেগম। তারপর থেকেই নিখোঁজ ছিলেন তিনি।ঝিনাইদহ সদও থানা ওসি হরেন্দ্রনাথ সরকার জানান, এ ঘটনায় তার পরিবারের পক্ষ থেকে বুধবার ঝিনাইদহ সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়।আজ সকালে পাশের বাড়ীর একটি সেফটিক ট্যাংকে লাশ দেখে এলাকাবাসী পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় পারুলা বেগম নামের এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ।

বড়াইগ্রামে পৃথক ৩ স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২, আহত ২০


বড়াইগ্রাম, (নাটোর) প্রতিনিধি:
নাটোরের বড়াইগ্রামে বৃহস্পতিবার রাত ৯টা থেকে ভোর সাড়ে ৪টার পর্যন্ত সাড়ে ৭ ঘন্টার ব্যবধানে মহাসড়কে পৃথক ৩টি সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে। এতে দুইজন নিহত ও কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছে।
শুক্রবার ভোর সাড়ে চারটার দিকে নাটোর-পাবনা মহাসড়কের উপজেলার বনপাড়া পুলিশ ফাঁড়ি এলাকায় মাছ বোঝাই বুডবুডির ধাক্কায় ভ্যান চালক সবুজ হোসেন (৩৫) নিহত এবং ২ ভ্যান যাত্রী আহত হয়। সবুজ পাশ্ববর্তী লালপুর উপজেলার কদমচিলান গ্রামের আলতাব হোসেনের ছেলে। আহত ভ্যান যাত্রী একই এলাকার ফজলু (৪০) ও রাশেদুল (২৫) কে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এর আগে রাত দেড়টার দিকে বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়কের সুতির মোড় এলাকায় দাঁড়িয়ে থাকা একটি ট্রাককে পেছন দিক থেকে আম বোঝাই ট্রাক ধাক্কা দিলে পেছনের ট্রাকের হেলপার আয়নাল হক (৩০) ঘটনাস্থলেই মারা যায় এবং ড্রাইভার হোসেন আলী (৪৫) মারাতœকভাবে আহত হয়। নিহত আয়নাল মানিকগঞ্জ জেলার সাটুরিয়া বরজুনা গ্রামের রুস্তম আলীর ছেলে।
এরও আগে রাত সাড়ে ৮টার দিকে বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়কের থানার মোড় এলাকায় দুই ট্রাক ও ঢাকা থেকে রাজশাহী গামী হানিফ পরিবহনের যাত্রীবাহি বাসের ত্রিমুখী সংঘর্ষে বাসের কমপক্ষে ১৭ যাত্রী আহত হয়। আহতদের বড়াইগ্রাম থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও স্থানীয় বেসরকারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
বনপাড়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জি এম শামসুর নুর ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, শুক্রবার সকালে নিহতদের লাশ ময়না তদন্তের জন্য নাটোর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। রাতভর হাইওয়ে থানা পুলিশের সকল সদস্য দুর্ঘটনায় আহতের জান-মাল নিরাপদে রাখতে ও সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক রাখতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে তৎপর ছিলো।

১০ বছর যাবৎ শিকলেবন্দী পার্বতীপুরের আজাদ

মোঃ তৌহিদুজ্জামান, পার্বতীপুরঃ-
দিনাজপুরের পার্বতীপুরে দীর্ঘ ১০ বছর যাবৎ গৃহপালিত পশুর ন্যায় লোহার শিকলে বাঁধা আবস্থায় জীবন যাপন করছে আজাদ আলী (৪০)। সে ১০ বছর যাবত সে মানুষিক রোগে ভুগছে।
উপজেলার ৫ নং চন্ডিপুর ইউনিয়নের ম্যারেয়া বড় হরিপুর গ্রামের আবতাব উদ্দিন প্রামানিকের ছেলে আজাদ আলীর। তার মায়ের নাম রওশন আরা। জানা যায়, প্রায় ১০ বছর পুর্বে বিবাহের কয়েক মাস পর তাকে ছেড়ে বাবার বাড়িতে চলে যায় তার স্ত্রী।
২৯ মে সোমবার সরেজমিনে গিয়ে স্যাঁতস্যাঁতে অসাস্থ্যকর নোংরা পরিবেশে বাড়ির পিছনের জঙ্গলে বিবস্ত্র অবস্থায় দুচোখ বন্ধকরে শুয়ে থাকতে দেখা যায় তাকে। তার পরিবারের দাবী সে মানুষিক রুগী এবং তাকে বেধে না রাখলে মানুষের উপর চড়াও হয়, কামড় দিয়ে জখম করে। ফলে বিশাল প্রাচীর ঘেরা বাড়ির মধ্যে কোন স্থানেই তার থাকার মত যায়গা হয়নি। বিছানা, মশারী বিহীন ভিজা মাটিতে জঙ্গলের মধ্যে শিকলবন্দি অবস্থায় অর্থাৎ পর্যাপ্ত মৌলিক চাহিদার অভাবে শিকলবন্দি আজাদ এখন মৃত্যু প্রায় অবস্থার মধ্যদিয়ে দিন পার করছে। তার বর্তমান অবস্থা এমন করুন যে, নিজ চোখে না দেখলে বিশ্বাসও করা যাবে না। এমন স্যাঁতস্যাঁতে অসাস্থ্যকর নোংরা পরিবেশে গৃহপালিত কোন পশু ও বাঁচতে পারেনা। আজাদ সারাদিন শুয়ে থাকে। কেউ তার কাছে গেলে ধরে তাকে কামড়ে দেয় সে। তবে অনেক বার চেষ্টা করা হলেও তার সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি।
আজাদ আলীর বর ভাই আফতাব উদ্দীন জানান, সে দীর্ঘ ১০/১২ বছর থেকে অসুস্থ্য। আমরা রংপুরের রফিকুল ডাক্তার এবং পাবনা মানষিক হাসপাতালে চিকিৎসা করেছি। পাবনায় তাকে ২ বার রেখে আসি। সেখানে প্রতিবার প্রায় ৩মাস করে সেখানে রাখা হয়। পরে পাবনা থেকে আমাদের বলেছে সে ভালো হবে না। পরে পাবনা থেকে আনার পর বিভিন্ন কবিরাজকে দেখানো হয়ছে। তারা বলে জ্বীনের দৃষ্টি আছে। আমরা অনেক চেষ্টা করেছি ভালো হয় নি। শিকল খুলে দিয়ে মানুষের উপর চড়াও হয়, কামড় দিয়ে জখম করে, মানুষকে মারতে চায়। তাই শিকলে বেঁধে রাখা হয়েছে। তবে বাড়ির ভেতরে না রেখে বাড়ির পিছনের জঙ্গলে স্যাঁতস্যাঁতে অসাস্থ্যকর নোংরা পরিবেশে রাখার কারণ জানতে চাইলে কোন প্রকার সদউত্তর দিতে পারেনি আজদের বড় ভাই আফতাব উদ্দীন।
আজাদ আলীর ছোট ভাবি জানান, সে ১০ বছর যাবত সে মানুষিক রোগে ভুগছে। দ্বিতীয় বার পাবনায় রেখে আসার পর সেখানে বৈদ্যুতিক তার ছিড়ে ফেলে এবং মারামারি করায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আমাদের জানায়, আপনাদের রোগী আপনারা নিয়ে যান, সে আর ভালো হবে না। তাকে আর রাখেনি। শরীরে কাপর রাখতে চায়না। কাপড় দিলে তা ছিড়ে ফেলে। মাঝখানে ভালো ছিলো।
তবে এলাকাবাসী বলছেন ভিন্ন কথা। আজাদের পর্যাপ্ত চিকিৎসার অভাবে দীর্ঘদিন যাবৎ তার এ অবস্থা। তাকে সঠিক চিকিৎসা প্রদান ও তার প্রতি যতœবান হলে এবং সঠিক চিকিৎসা করা হলে সে সুস্থ্য হয়ে উঠবে বলে তারা মনে করছেন। তার পরিবারের লোকেরা ইচ্ছে করেই কোন প্রকার চিকিৎসা করছে না বলেও অভিযোগ করেন এলাকাবাসী। বিষয়টি সমন্ধে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কারনা করেন তারা।
এ ঘটনা সমন্ধে পার্বতীপুর মডেল থানার অফিসারস্ ইনচার্জ মোস্তাক আহম্মেদকে আবগত করা হলে তিনি বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

টঙ্গীতে কিশোর কর্মচারী খুন ॥ মালিক সহ আটক-২

এস,এম,মনির হোসেন জীবন : গাজীপুর মহানগরী টঙ্গীর খাঁ পাড়া রোড মোল্লা বাড়ি এলাকায় টাইলসের দোকানের এক কিশোর কর্মচারী খুন হয়েছে। নিহতের নাম তমাল (১৪)। তার পিতার নাম সোহরাব আলী। শেরপুর জেলার সদর থানার তিরশা গ্রামে তার বাড়ি। বর্তমানে সে টঙ্গীর খাঁ পাড়া উত্তর আউচপাড়া এলাকার বাদশা মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকেন। খুনের ঘটনার সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে পুলিশ ওই দোকান মালিক মো. আহসান উল্লাহ (৩২) ও তমালের বন্ধু নাজমুল মিয়াকে (১৪)সহ দুই জনকে আটক করেছে । এঘটনায় নিহত তমালের মা হুজুরা বেগম বাদী হয়ে টঙ্গী মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। খবর পেয়ে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্বার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। বুধবার দিবাগত রাতে টঙ্গীর খাঁ পাড়া রোড মোল্লা বাড়ি এলাকায় এঘটনাটি ঘটে।
টঙ্গী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: ফিরোজ তালুকদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
এলাকাবাসি,পুলিশ ও নিহতের ভাই আপন বাবু জানান, টঙ্গীর খাঁ পাড়া উত্তর আউচপাড়া এলাকার আহসান উল্লাহর টাইলসের দোকানে কর্মচারী হিসেবে কাজ করত। প্রতিদিন রাত ১০টা-১১টার মধ্যে সে বাসায় ফিরত। গত বুধবার রাত ১০টার দিকে দোকান বন্ধ করে বাসার উদ্দেশে বের হয়। ওই রাত ১১টার দিকেও সে আর বাসায় না ফেরায় তার পরিবারের লোকজন তমালের মোবাইল ফোন করলে তা রিসিভ করছিল না কেউ। পরবর্তীতে রাত সোয়া ১১টার দিকে তমালের বন্ধু নাজমুল ও দোকান মালিক আহসান উল্লাহ তমালের পরিবারকে খবর দেয় যে স্থানীয় সাবেক কাউন্সিলর মো: নাসির উদ্দিন মোল্লার নির্মাণাধীণ ভবনের এক পাশে অচেতন অবস্থায় তমাল পড়ে আছে। পরে এলাকাবাসী ও তমালের পরিবারের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে টঙ্গী সরকারি হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।
এ ব্যাপারে রাতেই তমালের মা হুজুরা বেগম বাদী হয়ে আহসান উল্লাহকে প্রধান আসামি করে এবং অজ্ঞাত আরো ১০-১২ জনকে আসামি করে রাতে টঙ্গী মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। একটি প্রভাবশালী মহল আটকদের ছাড়িয়ে নিতে থানায় জোর তদবীর চালাচেছ বলে অভিযোগ করেছেন নিহতের পরিবার।
আটক আহসান উল্লাহ সাংবাদিকদের জানান, বুধবার রাত ১০টার দিকে দোকান বন্ধ করে দুইজন যার যার মত চলে যাই। রাত সোয়া ১১টার দিকে আমার বন্ধু আবু ববকর ফোন করে জানান, দোকান কর্মচারী তমাল ওই ভবনের নিচে পড়ে আছে। খবরটি তার স্বজনদের জানিয়ে ঘটনাস্থলে যাই। এছাড়া আমি আর কিছু জানি না।
টঙ্গী থানার এসআই মো. ছিদ্দিকুর রহমান জানান, নিহত তমালের মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তার লাশ টঙ্গী সরকারী হাসপাতাল রয়েছে। এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করা হয়েছে। এঘটনায় গতকাল বৃহস্পতিবার টঙ্গী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

রাণীনগরে দুর্ধর্ষ চুরি সংঘঠিত


নওগাঁ প্রতিনিধি : নওগাঁর রাণীনগরে এক সপ্তাহের মধ্যে একটি দুর্ধর্ষ ডাকাতি ও একটি দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে। এতে করে এলাকার জনসাধারণের মাঝে এক আতংক বিরাজ করছে।
সিংগারপাড়া গ্রামের মো: ইসমাইল হোসেন প্রামাণিকের স্ত্রী মোছা: মনোয়ারা বেগম জানান, গত বুধবার দিবাগত রাত অনুমান ১টার সময় বাড়ির মধ্যে ৭-৮জন অচেনা লোক হাতে লাঠি নিয়ে প্রবেশ করে। তারা বাড়ির মধ্যে প্রবেশ করে বারান্দার তালা কেটে একে একে ৩টি ঘরের দরজা ভেঙ্গে ঘরে প্রবেশ করে স্টিলের আলমারীর সিন্ধুক ভেঙ্গে প্রায় ৮ ভরি স্বর্ণালংকার ও নগদ ৫০ হাজার টাকা নিয়ে গেছে। চোরেরা কাউকে মারধর করেনি শুধু বাড়ির লোকজনদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। আর বাড়ির বাহিরে ঘরের প্রতিটি জানালায় ৩-৪জন করে অবস্থান করার কারণে বাড়ির লোকজন বাহিরের কাউকে ডাকতে পারেনি। চোরদের মুখ খোলা ছিল তবে কাউকে চিনতে পারা যায়নি। চোরেরা আমাদের এলাকার বাহিরের ছিলো।
মো: ইসমাইল হোসেন জানান, এই ঘটনায় থানায় কোন লিখিত অভিযোগ করা হয়নি। শুধুমাত্র মৌখিক ভাবে জানানোর পর থানার লোকেরা এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে গেছে। রাণীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান এই ঘটনায় থানায় এখনো কোন লিখিত অভিযোগ বা মামলা করা হয়নি। তবে ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের আটক করার জোর প্রস্তুতি ও অভিযান চালানো হচ্ছে।
উল্লেখ্য, গত শুক্রবার দিবাগত রাতে উপজেলার বানিয়াপাড়া গ্রামে এক দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটার ৫দিনের মধ্যে গত বুধবার দিবাগত রাতে উপজেলার সিংগারপাড়া গ্রামে মো: ইসমাইল হোসেন প্রামাণিকের বাড়িতে এক দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে। এক সপ্তাহের মধ্যে দুইটি ঘটনা মানুষের মাঝে এক ডাকাতি আতংক ছড়িয়ে দিয়েছে। এলাকাবাসী মনে করছেন আইন-শৃঙ্খলার ব্যাপক অবনতির কারণে এলাকায় হঠাৎ করেই চুরি ও ডাকাতির ঘটনা ঘটছে।


সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: এ্যাডভোকেট শেখ মোঃ আব্দুল্লাহ
সম্পাদক-প্রকাশক : শেখ মোঃ তৈয়াবুর রহমান॥

যুগ্ম সম্পাদক: এস এম শাহিদুল আলম॥ সহযোগী সম্পাদক: শেখ মোঃ আরিফ আল আরাফাত
সহ-সম্পাদক: (প্রশাসন) হাজী হাবিবুর রহমান শাহেদ: সহ সম্পাদক: আজমাল মাহমুদ
সম্পাদক কর্তৃক বাড়ী বাড়ী নং- ৫৩/২, ৪র্থ তলা, রাজ-নারায়ন-ধর রোড, কিল্লার মোড় বাজার, লালবাগ, ঢাকা-১২১১
ফোন: ০১৯১৮-২০১৬২৬, ফোন: ০১৭১৫-৯৩৩১৬৮
ই-মেইল- notunvor.news@gmail.com
Designed By Hostlightbd.com
| Cyberboss.org