,

ThemesBazar.Com

“সুদমুক্ত ক্ষুদ্র ঋণের উদ্যোক্তা ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান”-বললেন সমাজকল্যাণমন্ত্রী।

স্টাফ রিপোর্টার
ক্ষুদ্র ঋণ আমাদের দেশে নোবেল পুরস্কার নিয়ে এসেছে সত্যি কিন্তু সেই ক্ষুদ্র ঋণ আমাদের দেশের সাধারণ মানুষকে কিভাবে শোষণ করেছে তা আমাদের সকলেরই জানা। এ নিয়ে অনেক কথা হয়েছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষুদ্র ঋণকে বলেছেন সুদখোরের ব্যবস্যা। কিন্তু আজকের বর্তমান সরকার যে পদ্ধতিতে সাধারণ মানুষকে সুদহীন ঋণ প্রদান করছেন তার সাথে সুদযুক্ত ঋনের কোন সম্পর্ক নেই। এনজিওদের সাথে সরকারি ঋনের পার্থক্যটা বুঝতে হবে। এতদিন ক্ষুদ্র ঋনের মাধ্যমে জনগণের কোন সুবিধা হয়নি। বরং আমাদের বর্তমান সরকারের সুদহীন ক্ষুদ্র ঋণ ব্যবস্থাই সাধারণ মানুষের মনে দাগ কাটতে সক্ষম হয়েছে। অনেকেই মনে করেন ক্ষুদ্র ঋন ব্যবস্থা ড. মুহাম্মদ ইউনুছ করেছেন কিন্তু এটি সত্য নয়। ক্ষুদ্র ঋণ ব্যবস্থা ১৯৭৪ সালে প্রথম চালু করেছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। এ কারণে বঙ্গবন্ধুই হচ্ছে ক্ষুদ্র ঋনের প্রথম প্রবক্তা বললেন সমাজকল্যণমন্ত্রী জনাব রাশেদ খান মেনন, এমপি।
আজ ১৪ মার্চ ২০১৮ খ্রি: বুধবার, সকালে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৪নং ওয়ার্ডের কমিউনিটি সেন্টার হলে সুদমুক্ত ক্ষুদ্র ঋণ এবং বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ব্যক্তিদের সুবর্ণ নাগরিক কার্ড বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সমাজকল্যাণমন্ত্রী সুদমুক্ত ক্ষুদ্র ঋণ, সমাজের অনগ্রসর নাগরিকদের সরকার কর্তৃক বিশেষ সম্মননা কার্ড প্রদান প্রসঙ্গে নানা বিষয়ে আলোচনা করেন। এসময়ে অনুষ্ঠানে ঢাকা বিভাগীয় সমাজসেবা পরিচালক জনাব তপন কুমার সাহা এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা ১৫ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ¦ কামাল আহমেদ মজুমদার এমপি।
সমাজকল্যাণমন্ত্রী প্রতিবন্ধীদের কার্ড বিতরণ প্রসঙ্গে বলেন, “বর্তমান সরকার প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের সমাজের বিশেষ ব্যক্তি হিসেবে চিহিৃত করে সম্মানিত করেছেন। তাদেরকে এখন বলা হচ্ছে দেশের সুবর্ণ নাগরিক। আমাদের বর্তমান সরকার প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য নানা ধরণের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ১৯৯৬ ইং সনে ক্ষমতায় এসে বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতাসহ সমাজে পিছিয়ে পড়া লোকদের জন্য নানা ধরণের উদ্যোগ গ্রহণ করেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বয়স্ক প্রবীণ ব্যক্তিদের জন্য ভাতা ১০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫০০ টাকা করেছেন। প্রতিবন্ধীদের সুরক্ষায় বেশ কিছু আইন প্রনয়ন করেছেন। একারণে প্রধানমন্ত্রীর জনপ্রিয়তা দিনদিন তুঙ্গে উঠছে।”
অনুষ্ঠান শেষে মাননীয় সমাজকল্যাণমন্ত্রী নানা জায়গা থেকে আসা মানুষদের মাঝে সুদমুক্ত ক্ষুদ্র ঋণ ও বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ব্যক্তিদের সুবর্ণ নাগরিক কার্ড প্রদান করেন।

ThemesBazar.Com

     More News Of This Category