,

ThemesBazar.Com

ফুলবাড়ীয়ায় স্বামীর নিষ্ঠুরতা!

ফুলবাড়ীয়া (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ঃ ফুলবাড়ীয়ায় যৌতুক না দেওয়ায় স্বামীর নিষ্ঠুরতার শিকার হয়েছে স্ত্রী আছমা আক্তার (২৪)। হাত পাঁ বেঁধে শারীরিক ভাবে নির্মম নির্যাতন করার পর সিগারেটের আগুনের ছ্যাকা দিয়ে অসংখ্য ক্ষত করে দিয়েছে স্ত্রী’র দুটি হাত। এঘটনায় রবিবার রাতে স্ত্রী বাদী হয়ে ফুলবাড়ীয়া থানায় মামলা করেন। রাতেই স্বামী সাইফুল ইসলামকে পুলিশ গ্রেফতার করেন। ফুলবাড়ীয়া ইউনিয়নের কানাইপাড় গ্রামের মোঃ ওয়াজ উদ্দিনের কন্যা আছমা আক্তারের ৪ বছর পূর্বে বিয়ে হয় একই উপজেলার আছিম পাটুলী গ্রামের ওমেদ আলীর পুত্র সাইফুল ইসলামের কাছে। বিয়ের কিছুদিন পর থেকে যৌতুকের জন্য চাপ প্রয়োগ করে আসছিল স্ত্রীকে। যৌতুকের টাকা না দেওয়া স্ত্রী আছমা আক্তারের চলতি বছর বিএ পরীক্ষা দেওয়া বন্ধ করে দেয় স্বামী। গত শনিবার রাতে স্বামীর বাড়িতে ঘরের দরজা বন্ধ করে স্ত্রীকে হাত পাঁ বেঁধে ব্যাপক মারপিট করে সিগারেটের আগুন দিয়ে দুটি হাতে অসংখ্য ক্ষত করে দেয়। নির্যাতনের শিকার আছমা আক্তার বলেন, যৌতুকের জন্য ঘরের দরজাবন্ধ করে আমার স্বামী নিষ্ঠুরভাবে শারীরিক নির্যাতন করে, সিগারেটের আগুন দিয়ে জলসে দিয়েছে দুটি হাত। শিক্ষা জীবনটাও আমার ধ্বংস করে দিয়েছে যৌতুকের কারনে, চলতি বছর ৬ টি বিষয়ে বিএ পরীক্ষা দেওয়ার পর অন্য বিষয়ে পরীক্ষা দিতে দেয়নি। পিতা মোঃ ওয়াজ উদ্দিন বলেন, আমি দরিদ্র মানুষ, মেয়ের সুখের আশায় মাঝে মধ্যে টাকা পয়সা দিয়েছি, তারপরও যৌতুকের জন্য আমার মেয়ের দুটি হাত সিগারেটের আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে। ফুলবাড়ীয়া থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ কবিরুল ইসলাম জানান, যৌতুকের জন্য স্ত্রী নির্যাতনের ঘটনায় স্বামী সাইফুল ইসলামকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

ThemesBazar.Com

     More News Of This Category