,

ThemesBazar.Com

ফুলবাড়ীয়ায় শিক্ষকের কারাদন্ডফুলবাড়ীয়ায় শিক্ষকের কারাদন্ড

ফুলবাড়ীয়া (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ঃ ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়া উপজেলার ইঞ্জিনিয়ার শামছ উদ্দিন আহমদ উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোঃ হাছেন আলী মাস্টারকে চেক জালিয়াতির মামলায় যুগ্ম ও দায়রা জজ ১ম আদালত, ময়মনসিংহ বিচারক জাহাঙ্গীর হোসেন ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ৬ লক্ষ টাকা অর্থদন্ডের আদেশ দিয়েছেন।
দীর্ঘ দুই বছর মোকদ্দমা চলার পর বিগত ২০শে আগষ্ট যুগ্ম ও দায়রা জজ ১ম আদালতে অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় আসামীর বিরুদ্ধে এন,আই, এ্যাক্টের ১৩৮ ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ৬ লক্ষ টাকা অর্থদন্ডের আদেশ দেন। দায়রা মোঃ নং- ১৪৫০/১৬।
ঘটনার বিবরণীতে জানা যায়, চকরাধাকানাই (উত্তরপাড়া) গ্রামের মৃত আঃ রহমানের ছেলে মোঃ হাছেন আলী মাষ্টার বিগত ২৫ মে ২০১৫ ইং ডাঃ মদন মোহন দাসকে ৩ লক্ষ টাকার গঝখ ১২৩৩৬৩৫ নং একটি চেক প্রদান করেন। ডাঃ মদন মোহন দাস উক্ত চেকখানা ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড ফুলবাড়ীয়া শাখায় ২৮ মে হিসাব নং- ৬৫৩ এর অনুকুলে নগদায়নের জন্য জমা দিলে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ ওহংঁভভরপরবহঃ নধষধহপব (অপর্যাপ্ত তহবিল) হেতু চেকখানা ডিজঅনার করে রিটার্ণ মেমোসহ ফেরৎ প্রদান করেন। পরবর্তীতে ২৭ জুলাই ২০১৫ ইং ডাঃ মদন মোহন দাস বাদী হয়ে মোঃ হাছেন আলী মাস্টার এর বিরুদ্ধে এন, আই, এ্যাক্টের ১৩৮ ধারার বিধানমতে আদালতে মোকদ্দমা দায়ের করেন।
রায়ে উল্লে¬খ করা হয়েছে যে, প্রদত্ত অর্থদন্ডের টাকার মধ্যে ৩ লক্ষ টাকা বাদী প্রাপ্ত হবেন এবং অবশিষ্ট ৩ লক্ষ টাকা রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা হবে। রায় ঘোষণার সময় আসামী অনুপস্থিত থাকায় আসামীর উপর আরোপিত দন্ডাদেশ আসামী স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পন বা পুলিশ কর্তৃক ধৃত হওয়ার তারিখ হতে কার্যকর ও গ্রেফতারী পরোয়ানা ইস্যুর আদেশ দেন আদালত।

ThemesBazar.Com

     More News Of This Category