তথ্য অধিদফতরে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা

ঢাকা, ২৭ পৌষ (১০ জানুয়ারি) :
১০ জানুয়ারি তথ্য অধিদফতরের সম্মেলন কক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান তথ্য অফিসার এ কে এম শামীম চৌধুরী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে পরম শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করে বলেন, ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ পাকিস্তানি হানাদার মুক্ত হলেও বিজয়ের পরিপূর্ণতা লাভ করে জাতির পিতার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের পর। তিনি বলেন, ১৯৭২ সালে পাকিস্তান সরকার জাতির পিতাকে কারামুক্ত করলে তিনি প্রথম লন্ডন যান। সেখানে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী এডওয়ার্ড হীথের নেতৃত্বে ইংল্যান্ড সরকার বঙ্গবন্ধুকে অভূতপূর্ব বীরোচিত সংবর্ধনা দেন।
বঙ্গবন্ধুকে বহনকারী বিমান কিছু সময়ের জন্য দিল্লীতে যাত্রা বিরতি করে। সখোনে ভারতরে রাষ্ট্রপতি ভি ভি গরি,ি প্রধানমন্ত্রী ইন্দরিা গান্ধী, সমগ্র মন্ত্রসিভা, প্রধান নতেৃবৃন্দ, তনি বাহনিীর প্রধান এবং অন্যান্য অতথিি ও সে দশেরে জনগণরে কাছ থকেে উষ্ণ সংর্বধনা লাভ করনে সদ্যস্বাধীন বাংলাদশেরে জনক শখে মুজবিুর রহমান।বঙ্গবন্ধু ভারতরে নতেৃবৃন্দ এবং জনগণরে কাছে তাদরে অকৃপণ সাহায্যরে জন্য আন্তরকি কৃতজ্ঞতা জানান।বশিষেভাবে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করনে ভারতরে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দরিা গান্ধীর প্রত।ি প্রধান তথ্য অফিসার বলেন, পরবর্তীতে কোলকাতায় যাত্রা বিরতির কথা থাকলেও অপেক্ষমান জনগণের অধির আগ্রহের কথা চিন্তা করে মাটির টানে বঙ্গবন্ধু দিল্লী থেকে সরাসরি দেশে চলে আসেন।
তিনি বলনে, বঙ্গবন্ধু শখে মজবিুর রহমানকে বাঙালি জাতি প্রাণঢালা সংর্বধণা জানানোর জন্য ১০ জানুয়ারি ভোর থকেে ছলি অপক্ষোয়। ঢাকা তঁেজগাও বমিানবন্দর থকেে তিনি তৎকালীন রমনা রসের্কোস ময়দানে আসনে। বকিলে পাঁচটার দকিে রসের্কোস ময়দানরে জনসমুদ্রে বঙ্গবন্ধু আবগোপ্লুত ভাষণে বলছেলিনে, ‘আমার বাংলাদশে আজ স্বাধীন হয়ছে,ে আমার জীবনরে স্বাদ আজ র্পূণ হয়ছে,ে আমার বাংলার মানুষ আজ মুক্ত হয়ছে।ে’ পাকস্তিান সরকার তাকে মৃত্যুর হুমকি দলিে তনিি বলছেলিনে, ‘আমি বাঙ্গালি ! আমি মানুষ ! আমি মুসলমান ! মানুষ একবার মর,ে দুইবার মরে না। তিনি বলেন, ১৯৭১ সালের ঐতিহাসিক ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু তাঁর ভাষণে দেশ স্বাধীন করার নির্দেশনা দিয়েছিলেন। ১০ জানুয়ারির ভাষণে তিনি দিয়েছিলেন দেশ গড়ার পরিকল্পনা ও প্রকাশ করেছিলেন তাঁর আজন্ম লালিত স্বপ্ন।
এ কে এম শামীম চৌধুরী আরো বলেন, জাতির পিতার সুযোগ্য উত্তরসূরি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ে কাজ করে যাচ্ছে। বর্তমানে বাংলাদেশ মাতৃ-মৃত্যু ও শিশু মৃত্যু হ্রাসের ক্ষেত্রে প্রভূত সফলতা অর্জন করেছে। বিশ^সভায় বাংলাদেশ আজ নিজের যোগ্য আসন করে নিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন। তিনি বলেন, জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে আমাদেরকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে কাজ করতে হবে। সর্বোপরি ত্রিশ লক্ষ শহিদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত সংবিধান অনুযায়ী এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে আমাদের দেশের সেবা করতে হবে।
আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে সিনিয়র উপপ্রধান তথ্য অফিসার (প্রটোকল) ফজলে রাব্বী এবং সিনিয়র উপপ্রধান তথ্য অফিসার (প্রেস) আকতার হোসেন ছাড়াও অধিদফতরের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: এ্যাডভোকেট শেখ মোঃ আব্দুল্লাহ
সম্পাদক-প্রকাশক : শেখ মোঃ তৈয়াবুর রহমান॥

যুগ্ম সম্পাদক: এস এম শাহিদুল আলম॥ সহযোগী সম্পাদক: শেখ মোঃ আরিফ আল আরাফাত
সহ-সম্পাদক: (প্রশাসন) হাজী হাবিবুর রহমান শাহেদ: সহ সম্পাদক: আজমাল মাহমুদ
সম্পাদক কর্তৃক বাড়ী বাড়ী নং- ৫৩/২, ৪র্থ তলা, রাজ-নারায়ন-ধর রোড, কিল্লার মোড় বাজার, লালবাগ, ঢাকা-১২১১
ফোন: ০১৯১৮-২০১৬২৬, ফোন: ০১৭১৫-৯৩৩১৬৮
ই-মেইল- notunvor.news@gmail.com
Designed By Hostlightbd.com
| Cyberboss.org
Translate »